বগুড়ায় বিট কয়েন ব্যবসার নামে সাধারণ গ্রাহকদের কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়া একটি চক্রের চার সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব সদস্যরা। এসময় তাদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে ৬ লক্ষাধিক টাকা, একটি কম্পিউটার ও প্রতারণার কাজে ব্যবহৃত সরঞ্জাম। বুধবার দুপুরে বগুড়ার দুপচাঁচিয়া উপজেলার পোতাট্টি বাজারে এই অভিযান চালানো হয়।

আটককৃতরা হলেন-দুপচাঁচিয়া উপজেলার কোল গ্রামের ইসমাইল হোসেন ফিরোজ, রুহুল আমিন বিকাশ, পোতাট্টি গ্রামের মাসুদ রানা ও মাইনুল ইসলাম।

জানা যায়, গোয়েন্দা সংস্থা এনএসআইয়ের সুনির্দিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতে পোতাট্টি বাজারে অবস্থিত এনজেড রোবোট্রেড লিমিটেড নামের এলএমএল ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে অভিযান চালানো হয়। আটককৃতরা ওই প্রতিষ্ঠানের অন্তরালে বিট কয়েনের ব্যবসার মাধ্যমে গ্রাহকদের কাছ থেকে কয়েক কোটি টাকা হাতিয়ে নেয় মর্মে গোয়েন্দা সংস্থার কাছে তথ্য ছিল। সেই অনুযায়ী জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে সেখানে অভিযান চালিয়ে এই চক্রের মূল হোতা ইসমাইল হোসেন ফিরোজসহ চারজনকে আটক করা হয়।

অভিযানকালে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মারুফ আফজাল, র‌্যাব-১২ বগুড়া ক্যাম্পের কর্মকর্তা ছাড়াও গোয়েন্দা সংস্থার কর্মকর্তাগন উপস্থিত ছিলেন।

ম্যাজিষ্ট্রেট মারুফ আফজাল বলেন,বিট কয়েন নিয়ে প্রতারণার অভিযোগে ৪ জনকে আটক করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা হবে।

দুপচাঁচিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হাসান রায়েত জানান, চারজনকে আটক করেছে জানতে পেরেছি। কিন্তু তাদেরকে এখনও থানায় সোপর্দ করা হয়নি।