ঢাকা মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

ডান্ডাবেড়ি পরিয়ে যুবদল নেতার চিকিৎসা নিয়ে রিট, আদেশ আজ

ডান্ডাবেড়ি পরিয়ে যুবদল নেতার চিকিৎসা নিয়ে রিট, আদেশ আজ

ডান্ডাবেড়ি পরিয়ে যুবদল নেতার চিকিৎসা

 সমকাল প্রতিবেদক

প্রকাশ: ০৩ ডিসেম্বর ২০২৩ | ২২:৩৯

যশোর যুবদলের নেতা আমিনুর রহমান মধুকে ডান্ডাবেড়ি পরিয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়ার ঘটনার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে দায়ের করা রিটের ওপর গতকাল রোববার শুনানি শেষ হয়েছে। বিচারপতি মোস্তফা জামান ইসলাম ও বিচারপতি মো. আতাবুল্লাহর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ আজ সোমবার আদেশের জন্য দিন ধার্য রেখেছেন। 
এদিন শুনানিতে রিটকারী পক্ষের আইনজীবী এজে মোহাম্মদ আলী বলেন, জেলকোড ১০০ বছরের পুরোনো। আজও এই আইনের 
কোনো ধরনের সংশোধন করা হয়নি। এ পর্যায়ে আদালত বলেন, দেশ স্বাধীন হয়েছে ৫২ বছর। এ সময়ে অনেক রাজনৈতিক দল ক্ষমতায় এসেছে, আবার বিদায়ও নিয়েছে। কিন্তু শত বছরের পুরোনো জেলকোড কোনো রাজনৈতিক দল সংশোধন করেনি। 
আদালত আরও বলেন, আপনারা (রাজনীতিবিদ) তো জনগণের ভোটে বিজয়ী হয়ে সংসদে যান। কিন্তু মানুষের কল্যাণে কতটুকু কাজ করেন? সবাই নিজের কথা বলেন। দেশ স্বাধীন হয়েছে ৫২ বছর। কিন্তু আজও কেন জেলকোড সংশোধন করে যুগোপযোগী আইনে পরিণত করতে পারলেন না? 
এজে মোহাম্মদ আলী বলেন, রাষ্ট্র পরিচালনার মূলনীতির মধ্যে মানবসত্তার মর্যাদা রক্ষার কথা বলা হয়েছে। কিন্তু এই কলেজ শিক্ষককে ডান্ডাবেড়ি পরিয়ে হাসপাতালে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। সেই চিকিৎসা অসম্পূর্ণ রেখেই তাঁকে কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এমনকি একটি মামলায় জামিন পেলেও তাঁকে অন্য মামলা শ্যোন অ্যারেস্ট দেখানো হয়েছে। তিনি আরও বলেন, এই সরকারের আমলে মৃত বা হারিয়ে যাওয়া ব্যক্তির বিরুদ্ধেও মামলা হচ্ছে। আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া কয়েক বছর আগে মারা গেলেও তাঁকে নাশকতার মামলায় আসামি করা হয়েছে। 
এ পর্যায়ে আদালত বলেন, ডান্ডাবেড়ি কোন ধরনের আসামিকে পরানো যাবে, সেই বিষয়ে অ্যাপেক্স কোর্টের গাইডলাইন রয়েছে। শুনানি শেষে হাইকোর্ট সোমবার আদেশের জন্য দিন ধার্য রাখেন। 
 

আরও পড়ুন

×