টাঙ্গাইলের ধনবাড়ীতে বিয়ের কথা বলে নারীকে (২৬) ধর্ষণের অভিযোগে থানায় লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। সোমবার ধনবাড়ী থানায় অভিযোগটি দায়ের করছেন ভুক্তভোগী ওই নারী।

অভিযুক্তর নাম সেলিম মিয়া (৩৫)। তিনি উপজেলার ধোপাখালী ইউনিয়নের ছলিম উদ্দিন ওরফে সুমো’র ছেলে।

নির্যাতিত ওই নারী জানান, তিন বছর আগে তার বিয়ে বিচ্ছেদ হয়। তারপর থেকে তিনি দুই সন্তান নিয়ে বাবার বাড়িতেই থাকেন।  আত্মীয়তার সূত্র ধরে অভিযুক্ত সেলিমের সঙ্গে তার পরিচয় হয়। ধীরে ধীরে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে।

ওই নারী আরও জানান, সেলিম তাকে বিভিন্ন জায়গায় বেড়াতে নিয়ে যেত। এরই একপর্যায়ে সেলিম বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে তাকে ধর্ষণ করেন এবং স্বামী-স্ত্রীর মতো মেলামেশা শুরু করেন। পরে ওই নারী সেলিমকে বিয়ের কথা বললে তিনি তালবাহানা শুরু করেন। সর্বশেষ গত রোববার ওই নারীর বাড়িতে গিয়ে তাকে ধর্ষণ করেন সেলিম।

ভুক্তভোগী নারী বলেন, আমি এখন তিন মাসের অন্ত:সত্ত্বা। এ ঘটনা যেন আমি কাউকে না বলি এজন্য সেলিম এলাকার প্রভাবশালী লোকজন দিয়ে নানাভাবে আমাকে প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে। এছাড়াও এলাকার প্রভাবশালীদের মোটা আংকের টাকা দিয়ে ঘটনাটি ধামা চাপা দেয়ার চেষ্টা করছে।

তিনি আরও বলেন, নিজের জীবন ও দুই সন্তান নিয়ে আমি চিন্তিত আছি। এ ঘটনার বিচার চেয়ে ধনবাড়ী থানায় অভিযোগ করেছি।     


ধনবাড়ী থানার ওসি মো. চান মিয়া ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এ ঘটনায় একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। অভিযুক্তকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।