কিডনি রোগে আক্রান্ত হয়ে স্কুলশিক্ষক স্বামী বশির উদ্দিনের মৃত্যুর ১৯ দিন পর সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী মারিয়া আক্তার করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। শনিবার এ ঘটনা ঘটে। তাদের বাড়ি বরগুনার আমতলী উপজেলার চালিতাবুনিয়া গ্রামে।

আমতলী একে সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক বশির উদ্দিন হাওলাদার কিডনি রোগে আক্রান্ত হয়ে গত ১৬ আগস্ট চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। এর কয়েকদিন পর করোনায় আক্রান্ত হন তার স্ত্রী মারিয়া। তিনি শনিবার সকালে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে মারা যান। তিনি এক ছেলে রেখে যান। ওই দিন দুপুরে জানাজা শেষে তার মরদেহ পারিবারিক কবরস্থানে স্বামী বশির উদ্দিনের পাশেই দাফন করা হয়।

মারিয়ার নানা আবদুস ছালাম মাস্টার কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, এমন মর্মান্তিক মৃত্যু যেন আর কারও না হয়। মারিয়ার সাত বছরের একমাত্র ছেলে মারজানকে দেখাশোনার জন্য আর কেউ রইল না।