বাংলাদেশে আর কখনও তত্ত্বাবধায়ক সরকার হবে না বলে মন্তব্য করেছেন কৃষিমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক।

তিনি বলেন, ‘সংবিধানের আলোকে আগামীদিনের নির্বাচন হবে। বাংলাদেশে কোন নিরপেক্ষ সরকার হবে না, কোনো তত্ত্বাবধায়ক সরকার হবে না। বাংলাদেশে হবে সাংবিধানিক সরকার।’ 

শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে টাঙ্গাইল সার্কিট হাউজে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এমন মন্তব্য করেন তিনি। 

এ সময় কৃষিমন্ত্রী বলেন, ‘নির্বাচনের দায়িত্ব পালন করবে নির্বাচন কমিশন। যে নির্বাচন কমিশনের উপর সরকার বা কারও কোনো নিয়ন্ত্রণ থাকবে না। 

তিনি বলেন, ‘নির্বাচনের এখনো আড়াই বছর বাকি রয়েছে। এই নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আবারো বিএনপি আন্দোলনের হুমকি দিচ্ছে। ২০০১ থেকে ২০০৬ পর্যন্ত তাদের দুঃশাসন, অপশাসন, সন্ত্রাস ও অর্থনীতিকে ধ্বংস করার কারণে তাদের পায়ের নিচে থেকে মাটি সরে গেছে। তারা আন্দোলনের ডাক দিলে জনগন সাড়া দেয় না।’

চন্দ্রিমা উদ্যানে শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের মরদেহের ব্যাপারে ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, ‘এটি নিয়ে বিরাট ভুল বোঝাবোঝি রয়েছে। সত্য উদঘাটন হচ্ছে। আশা করি হয়ে যাবে।’  

এরপর তিনি শহরের শহীদ স্মৃতি পৌর উদ্যানে বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সবুর খান বীর বিক্রমের স্মরণসভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন। 

জেলা শ্রমিক ফেডারেশনর সভাপতি মো. বালা মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সাবেক মন্ত্রী শাজাহান খান, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফজলুর রহমান খান ফারুক, সংসদ সদস্য জোয়াহেরুল ইসলাম জোয়াহের, তানভীর হাসান ছোট মনির।