বরগুনার তালতলীর পায়রা নদীতে ধরা পড়েছে আড়াই কেজি ওজনের একটি ইলিশ। শনিবার সকালে ছোটবগী গ্রামের জেলে আকব্বর মাঝির জালে ধরা পড়ে মাছটি। পরে বাজারে ডাকের মাধ্যমে সাড়ে তিন হাজার টাকায় মাছটি কিনে নেন মাছ ব্যবসায়ী আনোয়ার হোসেন।

এদিকে, সকালে স্থানীয় বাজারে ইলিশটি বিক্রির জন্য তোলা হলে মাছটি এক নজর দেখার জন্য লোকজন ভিড় করে। আনোয়ার হোসেন মাছটির দাম হেঁকেছেন ৪ হাজার টাকা। ৩৬০০ টাকা পর্যন্ত দাম উঠলেও মাছটি বিক্রি করেননি তিনি।

মাছ ব্যবসায়ী আনোয়ার বলেন, আমার জানামতে, এর আগে এ মৌসুমে সর্বোচ্চ ১ কেজি ৬০০ গ্রাম ওজনের ইলিশ ধরা পড়েছিল। আড়াই কেজি ওজনের ইলিশ বিগত দু-তিন বছরে আমি দেখিনি বা কিনতেও পারিনি।

তিনি আরও বলেন, সকাল সাড়ে নয়টার দিকে পায়রা নদীর এত বড় ওজনের ইলিশ দেখে আমি অবাক হয়ে যাই। তাই দেরি না করে দ্রুত মাছটি কিনে বিভিন্ন যায়গায় যোগাযোগ করতে থাকি। মাছটি কেনার জন্য কয়েকজন ফোন দিয়েছে। সঠিক মূল্য পেলেই মাছটি বিক্রি করবো।

এ বিষয়ে তালতলী উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো.মাহাবুবুল আলম বলেন, এ মৌসুমে কয়েকটি বড় ইলিশ ধরা পড়েছে। তবে আড়াই কেজি ওজনের ইলিশ পাওয়া যায়নি । আজই প্রথম জানতে পারলাম পায়রা নদীতে আড়াই কেজি ওজনের ইলিশ ধরা পড়েছে।

তিনি আরও বলেন, আমার ধারণা, এ মৌসুমে এ রকম বড় ইলিশ পায়রায় আরও পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এই নদীতে বড় বড় ইলিশ পাওয়া আমাদের জন্য সুখবরও বটে। তার মতে, ৬৫ দিনের নিষেধাজ্ঞার সুফল হলো এই বড় ইলিশ।