যশোরে পুলিশ হেফাজতে রবিউল ইসলাম নামের এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় থানা থেকে পুলিশ সদস্যরা তাকে হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তবে পুলিশের দাবি, ওই যুবক হৃদরোগে মারা গেছেন। 

নিহত রবিউলের বাড়ি যশোর শহরের পালবাড়ি পারহাউজ মোড় এলাকায়।

যশোর কোতোয়ালি থানার ওসি তাজুল ইসলাম জানান, চুয়াডাঙ্গার দর্শনা উপজেলার দক্ষিণ চাঁদপুর গ্রামের মালেক মোল্লাসহ চারজন বৃহস্পতিবার যশোরে ইজিবাইক কিনতে আসেন। ইজিবাইক কিনে তারা তা চালিয়ে নিজ গ্রামের উদ্দেশে রওনা হন। বিকেল ৪টার দিকে তারা যশোর সদর উপজেলার চুড়ামনকাটি এলাকায় পৌঁছালে রবিউল ইসলাম তাদের গতিরোধ করেন এবং নিজেকে পুলিশ পরিচয় দিয়ে চাঁদা দাবি করেন। এরপর তিনি ইজিবাইকে উঠে হুমকি দিলে মালেক মোল্লা চিৎকার দেন। তখন স্থানীয়রা এসে তাকে গণপিটুনি দেয়। এ সময় হৃদরোগে আক্রান্ত হন তিনি। এরপর পুলিশ গিয়ে তাকে আটক করে এবং হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা দিয়ে থানায় নিয়ে যায়। পরে অসুস্থ হয়ে পড়লে ফের তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। এ সময় চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

যশোর সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক জানিয়েছেন, বিকেল ৪টার দিকে রবিউল ইসলামকে হাসপাতালে আনা হলে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। এরপর সন্ধ্যায় তাকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনে পুলিশ। তবে কী কারণে তিনি মারা গেছেন সে বিষয়ে কিছু জানাননি চিকিৎসক।