বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলায় নদীতে মা ইলিশ রক্ষা অভিযানে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) স্পিডবোট ডুবিয়ে দেওয়ার চেষ্টা চালিয়েছেন জেলেরা। এ ঘটনায় নদীতে তলিয়ে গেছে আনসার সদস্যের একটি শটগান। ইতোমধ্যে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিরা শটগানটি উদ্ধারে নেমেছেন।

শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলার দড়িরচর খাজুরিয়া ইউনিয়নের সিকদারের ঘাট সংলগ্ন গজারিয়া নদীতে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ইউএনও ও দুই আনসার সদস্য আহত হয়েছেন।

মেহেন্দিগঞ্জের ইউএনও শাহাদাত হোসেন বিকেল ৪টার দিকে সমকালকে জানান, তিনি এবং উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা সকাল ৮টার দিকে স্পিডবোট নিয়ে মা ইলিশ রক্ষা অভিযানে নেমেছিলেন। এরমধ্যে মেঘনায় অভিযান চালিয়ে সাত জেলেকে আটক করা হয়।

এরপর সকাল ১০টার দিকে গজারিয়া নদীর সিকদারের ঘাট এলাকায় গেলে মা ইলিশ নিধনরত জেলেদের বেশ কয়েকটি ট্রলার ইউএনওর স্পিডবোটের সামনে পড়ে। ট্রলারগুলো থামাতে বলা হলে তারা দ্বিগুণ গতিতে পালিয়ে যেতে থাকে। এরমধ্যে একটি ট্রলার এসে স্পিডবোটটিকে সজোরে ধাক্কা দেয়। এতে স্পিডবোটটি প্রায় পুবেই যাচ্ছিল।

ইউএনও বলেন, ট্রলারের ধাক্কায় আমি ডান পায়ে গুরুতর আঘাত পেয়েছি। আনসার সদস্য তুহিন ও ইব্রাহীম স্পিডবোট থেকে ছিটকে নদীতে পড়ে যান। পরে তারা সাঁতার কেটে তীরে উঠতে পারলেও তুহিনের সঙ্গে থাকা শটগানটি পানিতে তলিয়ে যায়অ

উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা ভিক্টর বাইন বলেন, নদীতে পড়ে আহত দুই আনসার সদস্যকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। এছাড়া শটগানটি উদ্ধারে নদীতে তল্লাশি শুরু করেছেন বরিশাল রিভার ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের ডুবুরিরা।