চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগ নেতা সুদীপ্ত বিশ্বাস হত্যা মামলায় দুই আসামি মো. মামুন ও আমজাদ হোসেন আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করলে তাদের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। সোমবার দুপুরে চট্টগ্রাম মেট্টোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মেহনাজ রহমানের আদালত এ আদেশ দেন। কোর্ট পুলিশের জিআরও এসআই নিরঞ্জন দাশ এ তথ্য জানিয়েছেন।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৭ সালের ৬ অক্টোবর নগরীর দক্ষিণ নালাপাড়ার বাসা থেকে ডেকে নিয়ে মহানগর ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক সুদীপ্তকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা দিদারুল আলম মাসুমসহ ২৪ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট জমা দেন পুলিশ।

চার্জশিটে উল্লেখ করা হয়, আসামি আইনুল কাদের নিপু, মোরশেদ আলম নিপু, চশমা রুবেল, বাপ্পি, খায়ের, বাবু, রুবেল, শামিম, জাহেদ, এসএইচ মুরাদ, জিস, সালাহউদ্দিন, জাহেদ, কবিরসহ সবাই লালখান বাজারে মিটিং করেন। সেই মিটিংয়ে নিপু অপারেশন চালানোর বিষয়ে সবাইকে একটি ম্যাপ দেন। মোবাইলে সেই ম্যাপের একটি ছবি তুলে রাখেন সবাই। ম্যাপে নালাপাড়ার একটি নীল গেট চিহ্নিত করা হয়। পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী, ঘটনার দিন তারা সিএনজি ও মোটরসাইকেলে করে নালাপাড়ায় যান। রুবেল, মুরাদসহ তিনজন সুদীপ্তকে বাসা থেকে টেনেহিঁচড়ে বের করে নিয়ে আসেন। এ সময় লোহার পাইপ দিয়ে পিটিয়ে সুদীপ্তকে খুন করা হয়।