গাজীপুরের কালীগঞ্জে চালককে গলা কেটে হত্যার পর ইজিবাইক ছিনতাইয়ের অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার রাত দশটার দিকে উপজেলার নাগরী ইউনিয়নের ভাসাভাসি গ্রামে (পূর্বাচল ২৬ নম্বর সেক্টর) এই ঘটনা ঘটে।

শনিবার সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কালীগঞ্জের উলুখোলা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ উপ পরিদর্শক (এসআই) মো. জাকির হোসেন।

পুলিশ নিহতের মরদেহ উদ্ধার করলেও পরিচয় শনাক্ত করতে পারেনি। তবে তাদের ধারণা, মৃতদেহটি একজন ইজিবাইক চালকের। পুলিশ জানিয়েছে, অজ্ঞাত ওই চালকের আনুমানিক বয়স ৩০/৩৫ বছর।  তার পরনে লাল রঙের চেক শার্ট ও চেক লুঙ্গি ছিল।

এস.আই জাকির স্থানীয় নৈশ প্রহরীর বরাত দিয়ে জানান, রাত ১০টার দিকে পূর্বাচল ২৬ নম্বর সেক্টরের রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় এক নৈশ প্রহরী তিনজন যাত্রী নিয়ে একটি ইজিবাইককে যেতে দেখেন। এর কিছুক্ষণ পর তিনি বাঁচাও বাঁচাও বলে এক ব্যক্তির চিৎকার শুনতে পান। পরে ওই নৈশ প্রহরী বিষয়টি  স্থানীয় ইউপি সদস্যকে ফোন করে জানান। ওই ইউপি সদস্য স্থানীয় পুলিশ ফাঁড়িতে ফোন দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে এক যুবকের গলাকাটা মরদেহ দেখতে পায়। কিন্তু ইজিবাইক বা এর ভেতরের যাত্রীদের কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি।

এস.আই আরো জানান, নিহতের গলাকাটা ছিল এবং শরীরে ১০/১২টি আঘাতের চিহ্ন ছিল। ধারণা করা হচ্ছে, তাকে কেউ হত্যা করে তার সাথে থাকা ইজিবাইক ছিনতাই করে নিয়ে গেছে।

এস. আই বলেন, নিহতের মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পাঠানো হবে।  এ ব্যাপারে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থাও নেওয়া হবে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য সেলিম মিয়া জানান,তার এলাকার এক নৈশ প্রহরী রাতে তাকে ফোন করে পূর্বাচল ২৬ নম্বর সেক্টর এলাকায় কেউ একজন বাঁচাও বাঁচাও বলে সাহায্য চাইছে বলে জানান। পরে তিনি স্থানীয় পুলিশ ফাঁড়িতে ফোন করে বিষয়টি জানান। এরপরই পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই যুবকের মরদেহ দেখতে পায়।।