গাজীপুরের কালীগঞ্জে একটি মৎস খামারে বিষ ঢেলে প্রায় দেড়শ' মণ মাছ মেরে ফেলার অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার ভাসানিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। 

শনিবার সকালে স্থানীয় সংবাদিকদের কাছে এ অভিযোগ করেন খামারের মালিক গোলাম কিবরিয়া । এর আগে শুক্রবার তিনি বিষয়টি নিয়ে কালীগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দেন। 

খামারের মালিক গোলাম কিবরিয়া ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার বীরগাঁও গ্রামের কবির খানের ছেলে এবং ঢাকা জজ কোর্টের শিক্ষানবিশ আইনজীবী। অভিযোগ পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কালীগঞ্জ থানাধীন উলুখোলা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. জাকির হোসেন।

এসআই জাকির হোসেন জানান, দুইদিন আগে কে বা কারা রাতের অন্ধকারে খামারে বিষ ঢেলে দিয়েছে বলে অভিযোগ দিয়েছেন গোলাম কিবরিয়া। এতে ওই আইনজীবীর মৎস্য খামারের সব মাছ মরে ভেসে উঠেছে। তিনি জানান, অভিযোগ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে এবং অভিযোগের সত্যতাও পেয়েছে। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলে জানান তিনি। 

খামার মালিক গোলাম কিবরিয়া জানান, গত বুধবার মৎস খামারের কেয়ারটেকার মোকলেস তাকে ফোন করে পুকুরের মাছ মরে ভেসে উঠছে বলে জানান। মাছের মরক মনে করে তিনি প্রথমে বিষয়টি আমলে নেননি। কিন্তু পরে খামারের বেশিরভাগ মাছ মরে ভেসে ওঠে। তার দাবি, বিষ দেওয়ায় তার খামারের ৮ থেকে ১০ লাখ টাকার মাছ মরে ভেসে উঠেছে।