বগুড়ার সারিয়াকান্দিতে যমুনা নদীতে গোসল করতে গিয়ে পানিতে ডুবে মোছাব্বির হোসেন ফাহিম (২২) নামে এক মেডিকেল শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। শনিবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে দীঘলকান্দি হার্ডপয়েন্টে  (প্রেম যমুনা ঘাট) এ ঘটনা ঘটে।

ফাহিম বগুড়ার গাবতলী উপজেলার দুর্গাহাটা ইউনিয়নের হাতিবান্ধা গ্রামের ফজলুল করিমের ছেলে। তিনি দিনাজপুর মেডিকেল কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলেন।

সারিয়াকান্দি থানার ওসি মিজানুর রহমান জানান, শুক্রবার সন্ধ্যায় ফাহিম তার খালাতো ভাই মোহাইমিনের সাথে সারিয়াকান্দির দীঘলকান্দি গ্রামে নানা আমজাদ হোসেন মণ্ডলের বাড়িতে বেড়াতে যান। শনিবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে ফাহিম ও মোহাইমিন দীঘলকান্দি হার্ডপয়েন্টের (প্রেম যমুনা ঘাট) যমুনা নদীতে গোসল করতে যান। সেখানে  ফাহিম গোসলে নামলেও মোহাইমেন উপরে দাঁড়িয়ে থাকেন। গোসলের এক পর্যায়ে  ফাহিম চোরাবালিতে ডুবে যান। পরে স্থানীয়রা টের পেয়ে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক ফাহিমকে মৃত ঘোষণা করেন।

ওসি আরও জানান, নদীর বিভিন্ন স্থানে চর পড়েছে। ওই চরে থাকা চোরাবালির মধ্যে ডুবে ওই শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে বলে জেনেছেন।

ওসি মিজানুর রহমান বলেন, কারও কোন অভিযোগ না থাকায় পরিবারের কাছে ফাহিমের লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে।