চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে শিশু সন্তানকে ডুবতে যেতে দেখে  পুকুরের পানিতে ঝাঁপ দিয়েছিলেন এক মা; তবে শেষ পর্যন্ত আর কাউকেই বাঁচানো যায়নি।

বুধবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার পুঁইছড়ি ইউনিয়নের দক্ষিণ পুঁইছড়ি ৩ নম্বর ওয়ার্ড পন্ডিতকাটা এলাকার লেদু সওদাগরের বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে।

মৃতরা হলেন- লেদু সাওদাগরের বড় ছেলে মুহাম্মদ বেলাল উদ্দিনের স্ত্রী মাশকুরা বেগম (২৩) ও তার শিশু পুত্র মুহাম্মদ বোরহান উদ্দীন (১)।

প্রত্যক্ষদর্শী মুহাম্মদ জসিম উদ্দিন জানান, সকালে ছোট বাচ্চাকে পুকুরে গোসল করাতে নিয়ে যান তার মা মাশকুরা বেগম। পুকুর ঘাটের সিঁড়ি থেকে হঠাৎ করে অসাবধানতাবশত শিশুটি পুকুরে পড়ে যায়।

তিনি জানান, একপর্যায়ে শিশুটিকে পুকুরের পানিতে তলিয়ে যেতে দেখে মা বাচ্চাটিকে উদ্ধার করতে গিয়ে পানিতে ঝাঁপ দেন। মা সাঁতার না জানায় একই সময়ে মা-ছেলে পুকুরের পানিতে ডুবে যান। পরে স্থানীয়রা তাদেরকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে পার্শ্ববর্তী পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে  কর্তব্যরত চিকিৎসক মা ও ছেলেকে মৃত ঘোষণা করেন।

বাঁশখালী থানার ওসি কামাল উদ্দীন সাংবাদিকদের জানান, মা ও ছেলের মৃতদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।