হবিগঞ্জের লাখাইয়ে এক স্কুলছাত্রীকে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগে শাকিল মোল্লা নামে এক কিশোরকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে লাখাই থানা পুলিশ। এছাড়াও শুক্রবার সকালে ধর্ষণের শিকার ছাত্রীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

গ্রেপ্তার শাকিল মোল্লার বাড়ি উপজেলার মোড়াকড়ি দিঘিরপাড় গ্রামে।

লাখাই থানার (ওসি) সাইদুল ইসলাম জানান, গত ১৪ অক্টোবর ভুক্তভোগী কিশোরী গ্রামের রাস্তা দিয়ে তার এক আত্মীয়ের বাড়ি যাচ্ছিল। এ সময় শাকিল ওই কিশোরীর মুখ চেপে রাস্তা থেকে তুলে পাশের একটি জঙ্গলে নিয়ে ধর্ষণ করে। লোকলজ্জার ভয়ে ওই ছাত্রী বিষয়টি কাউকে জানায়নি।

এক পর্যায়ে শারীরিকভাবে সে অসুস্থবোধ করলে বৃহস্পতিবার বিকেলে ধর্ষণের বিষয়টি সে তার মাকে জানায়। তার মা বিষয়টি লাখাই থানাকে জানালে তাৎক্ষণিক পুলিশ অভিযান চালিয়ে শাকিলকে আটক করে। পরে রাতে ভুক্তভোগী কিশোরীর মা বাদী হয়ে লাখাই থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ শাকিলকে গ্রেপ্তার দেখায়। শুক্রবার দুপুরে তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।