রাজধানীর জিল্লুর রহমান ফ্লাইওভারের ওপরে প্রাইভেটকারের ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী এক শিক্ষার্থী নিহত হয়েছেন। তার নাম ফায়জুল ইসলাম খান উল্লাস (১৮)। শুক্রবার জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবসের সকালে এ ঘটনা ঘটে। নিহত তরুণ মিরপুরের একটি কলেজের উচ্চ মাধ্যমিক শ্রেণির ছাত্র ছিলেন।

ক্যান্টনমেন্ট থানার ওসি কাজী সাহান হক সমকালকে বলেন, মিরপুরের বাসা থেকে বেরিয়ে খিলক্ষেতের ৩০০ ফুট এলাকায় যাচ্ছিলেন উল্লাস। পথে ফ্লাইওভারের ওপর তার সামনে ছিলেন এক বাইসাইকেল আরোহী। তাকে পাশ কাটানোর সময় পেছন থেকে আসা একটি প্রাইভেটকারের ধাক্কায় তিনি ছিটকে পড়েন। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। পরিবারের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ময়নাতদন্ত ছাড়াই তার লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে।

পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস সূত্র জানায়, মিরপুর-১২ নম্বরের ই-ব্লকের ৫ নম্বর সড়কের একটি বাসায় পরিবারের সঙ্গে থাকতেন উল্লাস। তার গ্রামের বাড়ি ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে। তার বাবা রবিউল আলম খান আগেই মারা গেছেন।

কুর্মিটোলা ফায়ার স্টেশনের সিনিয়র স্টেশন অফিসার সফিকুল ইসলাম বলেন, সকাল সাড়ে ৬টার দিকে ক্যান্টনমেন্ট ফ্লাইওভারের ওপর এক মোটরসাইকেল আরোহী দুর্ঘটনার কবলে পড়েছেন বলে খবর পাওয়া যায়। তখনই কুর্মিটোলা ফায়ার স্টেশনের একটি দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে তার মৃতদেহ পায়। পরে মৃতদেহ ক্যান্টনমেন্ট থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

ক্যান্টনমেন্ট থানার এসআই আনোয়ার হোসেন জানান, দুর্ঘটনায় দায়ী প্রাইভেটকারটি শনাক্ত করা যায়নি। তবে আশেপাশের সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ পর্যালোচনা করে দেখা হচ্ছে। দ্রুতই সেটি শনাক্ত করা সম্ভব হবে। প্রতি শুক্রবার ওই তরুণ 'বাইক রেসের' উদ্দেশ্যে পূর্বাচল এলাকায় যেতেন বলে জানা গেছে। এদিনই সম্ভবত তিনি সেখানেই যাচ্ছিলেন।