আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল-আলম হানিফ বলেছেন, শান্তি, সম্প্রীতি এবং অগ্রগতি রক্ষায় যে শুভযাত্রা অব্যাহত আছে তা বানচাল করতে একটি অপশক্তি জেগে উঠেছে। তাদের প্রতিহত করতে হবে।

শনিবার সন্ধ্যায় চট্টগ্রাম নগরীর কাজীর দেউরীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন হলে এক নাগরিক শোকসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের আলকরণ ওয়ার্ডের চারবারের নির্বাচিত কাউন্সিলর ও আওয়ামী লীগ নেতা প্রয়াত তারেক সোলেমান সেলিম স্মরণে এর আয়োজন করা হয়।

মাহবুবউল-আলম হানিফ আরও বলেন, আমরা ক্ষমতায় আছি। কিন্তু কঠিন সময় অতিক্রম করছি। কারণ আমরা আত্মতুষ্টিতে ভুগে দলের অস্তিত্বের ভিত্তিকে দুর্বল করে ফেলছি। মনে রাখতে হবে, ব্যক্তির চাইতে দল বড়, দলের চাইতে দেশ বড়। তাই কে আমরা বড় হব এই প্রতিযোগিতা বাদ দিয়ে নিজের অস্তিত্বের জায়গাটুকু সুদৃঢ় করতে হবে। দলের কঠিন সময়ে যারা থাকেন তারা মূল্যায়িত হবেন।

প্রয়াত নেতা তারেক সোলেমান সেলিমের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে তিনি বলেন, তারেক সোলেমান সেলিম চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের নিবেদিতপ্রাণ ব্যক্তিত্ব ছিলেন। তিনি ছোটবেলা থেকেই অসাম্প্রদায়িক রাজনৈতিক চর্চা করেছেন।

নাগরিক শোকসভা কমিটির চেয়ারম্যান ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে শোকসভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোছলেম উদ্দিন আহমদ এমপি, নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরী, প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাডভোকেট ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল, স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক একেএম আফজালুর রহমান বাবু, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শহিদুল হক রাসেল প্রমুখ।