খুলনার তেরখাদা উপজেলার তেরখাদা সদর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বহিষ্কৃত সভাপতি এফ এম অহিদুজ্জামানকে দলের মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে। এ নিয়ে স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা ক্ষুব্ধ হয়েছেন।

রোববার দুপুরে খুলনা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করা হয়। এতে লিখিত বক্তব্য পড়ে শোনান তেরখাদা উপজেলা যুবলীগ সদস্য ও মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের সাধারণ সম্পাদক শেখ শামীম হাসান। এ সময় দলের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, গত ১৯ জুলাই তেরখাদা ইউনিয়ন পরিষদ ভবন চত্বরে এক সভায় তেরখাদা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এফ এম অহিদুজ্জামান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হেয় করে বক্তৃতা করেন। ওই সভায় তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী দেশের বাইরে গেলে খুলনা-৪ আসনের সংসদ সদস্য তাকে আর্থিক সহায়তা দেন। 

এর পরিপ্রেক্ষিতে গত ২৬ জুলাই জেলা আওয়ামী লীগের সভায় অহিদুজ্জামানকে সাময়িক বহিষ্কার এবং স্থায়ীভাবে বহিষ্কারের জন্য কেন্দ্রীয় কমিটির কাছে সুপারিশ পাঠানো হয়। তার বহিষ্কারাদেশ এখনও প্রত্যাহার হয়নি। 

এ ছাড়া উপজেলা অথবা জেলা আওয়ামী লীগ তাকে দলীয় মনোনয়ন দেওয়ার জন্য কোনো সুপারিশ করেনি। জেলা আওয়ামী লীগ যে ৬ জনের জন্য কেন্দ্রীয় কমিটির কাছে সুপারিশ পাঠিয়েছিল তার মধ্যে অহিদুজ্জামানের নাম নেই। 

অবশ্য এফ এম অহিদুজ্জামান মোবাইল ফোনে দাবি করেন, তার বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করে দল তাকে মনোনয়ন দিয়েছে।

এ ব্যাপারে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হারুনুর রশীদ সমকালকে বলেন, ‘কেন্দ্রীয় কমিটি তার বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করেছে কিনা তা জেনে পরে জানাতে পারবো।’