বরিশাল সরকারি ব্রজমোহন (বিএম) কলেজের ছাত্রাবাসগুলো সংস্কার ও ছাত্রাবাস ফি কমানোসহ ১১ দফা দাবিতে বিক্ষোভ করেছেন শিক্ষার্থীরা। 

মঙ্গলবার সকালে ক্যাম্পাস ও সংলগ্ন সড়কে বিক্ষোভ শেষে কলেজ অধ্যক্ষ অধ্যাপক গোলাম কিবরিয়ার কাছে স্মারকলিপি দেন তারা। দাবি না মানা হলে কলেজে শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ করে দেওয়ার হুমকিও দিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে নেতৃত্ব দেওয়া আবু রায়হান বলেন, ছাত্রাবাসগুলো সংস্কার করে বসবাস উপযোগী করে তোলা, বর্ধিত ছাত্রাবাস ফি বাতিল, বহিরাগতদের আনাগোনা রোধে প্রাচীর নির্মাণ এবং ছাত্রাবাসের পুকুরগুলোর ইজারা বাতিল করে পুনরায় ছাত্রাবাসের নামে বরাদ্দ দেওয়াসহ ১১ দফা দাবি তাদের।

এসব দাবিতে শিক্ষার্থীরা এদিন সকাল ১১টায় কলেজের জিরো পয়েন্ট থেকে বিক্ষোভ মিছিল শুরু করে ক্যাম্পাস ঘুরে সংলগ্ন কলেজ রোড প্রদক্ষিণ করে।

পরে অধ্যক্ষ গোলাম কিবরিয়া শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে স্মারকলিপি গ্রহণ করে বলেন, তাদের দাবিগুলো পূরণ করার ক্ষমতা কলেজ প্রশাসনের নেই। সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের সঙ্গে আলোচনা করে দাবিগুলো পূরণের চেষ্টা চালাবেন।

১৩২ বছরের পুরনো সরকারি বিএম কলেজের ৬টি ছাত্রাবাসে এক হাজার ২০০ শিক্ষার্থীর আবাসনের ব্যবস্থা রয়েছে। তবে ছাত্রাবাসগুলোতে সব সময় ধারণ ক্ষমতার দ্বিগুণ শিক্ষার্থী বাস করেন। ছাত্রাবাসগুলোর বেশিরভাগই সংস্কারের অভাবে ব্যবহার অনুপযোগী হয়ে পড়েছে।