ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে দুটি ধান ও পাটের গোডাউনসহ ৮ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। এতে প্রায় কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি করেছেন ব্যবসায়ীরা। 

গত মঙ্গলবার রাতে কসবার কুটি বাজারে এই ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে কুটি চৌমুহনী দমকল বাহিনীর লোকজন ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রন আনেন। এ ঘটনায় উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তাকে আহ্বায়ক করে ৬ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছেন উপজেলা প্রশাসন। 

আগুন লাগার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যান উপজেলা চেয়ারম্যান রাশেদুল কাওসার জীবন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুদ উল আলম, সহকারী কমিশনার ভূমি হাছিবা খান, কসবা থানা অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ আলমগীর ভূঁইয়া। 

ক্ষতিগ্রস্থরা জানান, গত মঙ্গলবার রাত আনুমানিক ১০টার সময় উপজেলার ঐতিহ্যবাহী কুটি দক্ষিন বাজারের একটি দোকানে আগুন দেখতে পায় লোকজন। তাদের চিৎকারে বাজারের অন্যন্য ব্যবসায়ীসহ স্থানীয়রা ছুটে আসেন আগুন নেভাতে। আগুনের লেলিহান শিখা বেড়ে যাওয়ায় স্থানীয় চৌমুহনী দমকল বাহিনীকে  খবর দিলে তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রায় আড়াই ঘণ্টাব্যাপী চেষ্টা করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। এসময় পাশের উপজেলাগুলো থেকে আরও তিনটি ইউনিট এসে আগুন নেভাতে সাহায্য করে। 

ততক্ষণে পুড়ে গেছে দুটি গুদামে থাকা এক হাজার মণ পাট ও সাড়ে নয়শ মণ ধান এবং একটি রাইস মিল, একটি ইজিবাইক গ্যারেজসহ ৮টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সব মালামাল।

গুদামের মালিক জায়েদুল ইসলাম সমকালকে বলেন, ‘আমার সব শেষ হয়ে গেছে, একবারে নিঃস্ব হয়ে পথে বসে গেছি। গুদামে থাকা এক হাজার মণ পাট ও সাড়ে নয়শ মণ ধান পুড়ে আমার ৪০ লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়েছে।’ 

গ্যারেজে পুড়ে যাওয়া ইজিবাইক মালিক সবুজ বলেন, ‘কিস্তির টাকায় কেনা গাড়ি চালিয়ে কিস্তির টাকা পরিশোধ ও সংসার চালাতাম। আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে আমাদের গাড়িগুলো। এখন কিভাবে কিস্তি চালাব, কিভাবে সংসার চালাব ভেবে পাচ্ছি না। সরকারিভাবে যদি আমাদের কিছু সহযোগিতা করেন তাহলে আবার গাড়ি কিনে কিস্তির ঋণ শোধ করাসহ ছেলেমেয়ে পরিবার নিয়ে ডাল ভাত খেয়ে জীবনটা বাঁচাতে পারব।’

কুটি চৌমুহনী দমকল বাহিনী কর্মকর্তা আবদুল্লা খালিদ বলেন, ‘কিভাবে আগুনের সূত্রপাত তা এখনও সঠিকভাবে বলা যাচ্ছে না। তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।’

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুদ উল আলম জানান, অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ১ কোটি ২ লাখ ৫৫ হাজার টাকার ক্ষয়ক্ষতি নিরুপন করা হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্তদের সহযোগিতার ব্যাপারে বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।