নরসিংদীর শিবপুরে শরীফ মিয়া (৪০) নামের এক যুবককে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। বুধবার ভোরে উপজেলার সাধারচর ইউনিয়নের কালোয়ারকান্দা গ্রাম থেকে তার গলা কাটা লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত শরীফ মিয়া উপজেলার সাধারচর ইউনিয়নের তাতেরকান্দী গ্রামের বাসিন্দা।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার সন্ধ্যার দিকে বাড়ি থেকে বের হন শরীফ। রাতে না ফেরায় আশপাশে খোঁজাখুঁজি করেন পরিবারের সদস্যরা। এক পর্যায়ে বাড়ি থেকে আধা কিলোমিটার দূরে কালোয়ারকান্দা গ্রামের একটি জমিতে তার মরদেহ পড়ে থাকতে দেখেন তারা। এ সময় তার দেহ ধারালো অস্ত্রের আঘাতে ক্ষতবিক্ষত ও গলা কাটা অবস্থায় ছিল। পরে পুলিশে খবর দিলে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

নিহতের ছোট ভাই জুয়েল মিয়া বলেন, মনে হয়, ক্ষোভ থেকেই এমন নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়েছে তাকে।

সাধারচর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মাছিহুল গনি স্বপন জানান, তাকে (শরীফ) নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়েছে।

শিবপুর মডেল থানার উপপরিদর্শক মোক্তার হোসেন জানান, শরীফ মিয়া এলাকায় 'ডাকাত শরীফ' নামে পরিচিত ছিল। তার নামে হত্যা, ডাকাতি ও বিস্ফোরকসহ অন্তত পাঁচটি মামলা রয়েছে। ২০১৮ সালে শিবপুরের বন্যার বাজার এলাকায় মকবুল ডাকাত হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় চার্জশিটভুক্ত আসামি তিনি।

উপ-পরিদর্শক আরও জানান, হত্যার ঘটনায় এখনো কোনো মামলা হয়নি। তবে হত্যার কারণ নিশ্চিত হওয়া যায়নি। কাউকে এখনো গ্রেপ্তার করা হয়নি।