কিশোরগঞ্জের নিকলী উপজেলার সিংপুর ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ড বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মইজ উদ্দিনের (৫০) মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিকলী থানার অফিসার ইনচার্জ  (ওসি) মনসুর আলী আরিফ সমকালকে জানান, রোববার সকালে ঘোরাদিঘা এলাকার ধনু নদীতে লাশ ভাসতে দেখে স্থানীয়রা নিকলী থানা পুলিশকে খবর দেন। খবর পেয়ে নিকলী থানার এসআই আনিসুল হকের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে।

মইজ উদ্দিন উপজেলার সিংপুর ইউনিয়নের শান্তিপুর গ্রামের মলহাঁটির মৃত মধু মিয়ার ছেলে। তিনি পেশায় ডিজেল ইঞ্জিন মেকানিক ছিলেন। বাড়িতে হাঁস পালনের সঙ্গে নদীতে মাছ ধরতেন তিনি। 

ওসি মনসুর আলী বলেন, ‘নিহত মইজ উদ্দিনের মাথায়, ডান হাত ও  ডান পায়ের উরুতে আঘাতে চিহ্ন রয়েছে। স্থানীয়রা আমাদের জানিয়েছে, আগামী ২৮ নভেম্বর এ এলাকায় ইউপি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কোনো গ্রুপের সাথে দ্বন্দ্বে এ হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।’

তিনি আরও জানান, তার মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।

পারিবারিক সূত্র জানায়, প্রতিদিনের মতো গত বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে জাল দিয়ে মাছ ধরতে মইজউদ্দিন নৌকা নিয়ে ধনু নদীতে যান। পরে বাড়ি ফিরতে দেরি হচ্ছে দেখে পরিবারের সদস্যরা শুক্রবার রাত সাড়ে ৩টার দিকে নদীতে এগিয়ে গেলে শুধু তার ব্যবহৃত নৌকাটি ভাসতে দেখেন।  

এ ঘটনায় পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।