করোনা মহামারি মোকাবিলায় বিদেশিদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল অস্ট্রেলিয়া সরকার। সেই নিষেধাজ্ঞা এখন শিথিল করা হচ্ছে। আগামী ১ ডিসেম্বর থেকে করোনার দুই ডোজ টিকা নেওয়া ভিসাধারী বিদেশিরা অস্ট্রেলিয়ায় যেতে পারবেন।

সোমবার সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে দেশটির প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন এ তথ্য জানান। খবর বিবিসির

২০২০ সালের মে মাসে আন্তর্জাতিক সীমান্ত বন্ধ করে দেয় অস্ট্রেলিয়া। এরপর থেকে কেবল সীমিত সংখ্যক নাগরিক ও স্থায়ী বাসিন্দারাই দেশটিতে প্রবেশের অনুমতি পেয়েছেন। কিন্তু ভিসাধারী বিদেশিদের অনুমতি মিলছিল না।

ধারণা করা হচ্ছে, আগামী ডিসেম্বর থেকে জানুয়ারি পর্যন্ত দেশটিতে ২ লাখ মানুষ ভ্রমণ করতে পারেন। 

মহামারির কারণে অস্ট্রেলিয়ার অর্থনীতি বড় ধরনের ধাক্কা খেয়েছে। কেননা দেশটির অর্থনীতির অধিকাংশ নির্ভর করে বৈদেশিক শ্রমিক ও শিক্ষার্থীদের ওপর।

নিষেধাজ্ঞা শিথিল করায় দক্ষ অভিবাসী ও বিদেশি শিক্ষার্থীরা অস্ট্রেলিয়ায় প্রবেশের সুযোগ পাচ্ছেন। তবে তাদের করোনা টেস্টের নেগেটিভ সনদ দেখাতে হবে। 

২০১৯ সালের হিসাব অনুযায়ী, বিদেশি শিক্ষার্থীদের পড়াশোনা বাবদ অস্ট্রেলিয়া আয় করেছে ৪০ বিলিয়ন অস্ট্রেলিয়ান ডলার।