চুয়াডাঙ্গার জীবননগরে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে তৃতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থী মানিক (১১) নামের এক শিশু নিহত হয়েছে। খুচরা ব্যবসায়ী বাবার সঙ্গে আড়তে মাছ কিনতে আসার সময় ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে তার মৃত্যু হয়। বুধবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে জীবননগর পাথিলা আলুবীজ হিমাগারের পাশে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় শিশুটির বাবা মহেশপুর উপজেলার পোড়াপাড়া গ্রামের বাবুল হোসেন সর্দার আহত হয়েছেন।

জীবননগর থানার ওসি (তদন্ত) স্বপন কুমার দাস বলেন, মহেশপুর উপজেলার পোড়াপাড়া গ্রামের মৃত আব্দুস সর্দারের ছেলে বাবুল হোসেন সর্দার পেশায় একজন খুচরা মাছ বিক্রেতা। বুধবার সকালে ছেলের বায়না মেটাতে নিজের পাখি ভ্যানে করে তাকে সঙ্গে নিয়ে মাছের মোকামের উদ্দেশে রওনা হয়। তারা পাথিলা আলুবীজ হিমাগারের কাছে এসে পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা দ্রুতগামী ট্রাকে ধাক্কা লাগে।

ওসি বলেন, পাখি ভ্যানে বসে থাকা ছেলে মানিক দুর্ঘটনায় রাস্তায় ছিটকে পড়ে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলে মারা যায়। ভ্যানচালক বাবা বাবুল হোসেন আহত হলে তাকে উদ্ধার করে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় ট্রাকটিকে জব্দ করা হয়েছে।