জামালপুরের বকশীগঞ্জে গৃহকর্মীকে (১৬) ধর্ষণের অভিযোগে এক কৃষকলীগ নেতাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার রাতে সাধুরপাড়া ইউনিয়নের আর্চচা কান্দি গ্রামে বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার দেলোয়ার হোসেন ওরফে দুলু (৬০) সাধুরপাড়া ইউনিয়ন কৃষকলীগের সভাপতি ও সাধুরপাড়া ইউনিয়নের আর্চচা কান্দি গ্রামের বাসিন্দা। তার বিরুদ্ধে বকশীগঞ্জ থানায় মামলা হয়েছে।

ওই কিশোরী জানায়, ছোট বেলা তার বাবা মারা গেছেন। অভাব অনটনের কারণে মা তাকে দেলোয়ার হোসেন ওরফে দুলুর বাড়িতে গৃহকর্মী হিসেবে কাজে দেন। পরে বিয়ের কথা বলে দুলু একাধিকবার তার সঙ্গে সম্পর্ক করেন। এক পর্যায়ে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লে গর্ভপাত করার জন্য চাপ দেন দেলোয়ার। কয়েক দিন তাকে হাসপাতালেও নিয়ে যান। কাউকে জানালে মেরে ফেলারও হুমকি দেন দুলু। লজ্জায় ও ভয়ে এতদিন বিষয়টি কাউকে জানায়নি বলে জানায় ওই কিশোরী।

পুলিশ জানায়, মঙ্গলবার বিকালে পেটে ব্যথা নিয়ে হাসপাতালে আসে ওই কিশোরী। ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়ার পর হাসপাতালের বাথরুমে যায়। সেখানেই কন্যা সন্তানের জন্ম দেয় মেয়েটি।

বকশীগঞ্জ থানার ওসি শফিকুল ইসলাম সম্রাট জানান, এই ঘটনায় কিশোরীর মা বাদী হয়ে থানায় ধর্ষণ মামলা করেছেন। ওই মামলায় দেলোয়ার হোসেন ওরফে দুলুকে গ্রেপ্তার করা হয়।