নওগাঁর নিয়ামতপুরে ছবি বিবি (৬৭) নামে এক বৃদ্ধার মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার সকালে উপজেলার ভাবিচা ইউনিয়নের হটাৎপাড়া গ্রামের একটি বাড়ি থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

মারা যাওয়া ছবি বিবি ওই গ্রামের মৃত সোহরাব হোসেনরে স্ত্রী। পরিবারের সদস্যদের অভিযোগ, পারিবারিক কলহের জের ধরে ছবি বিবির মেয়ে জামাই এমরান হোসেন তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে।  

অভিযুক্ত এমরান হোসেন নওগাঁ জেলার রানীনগর উপজেলার বাসিন্দা।  ঘটনার পর থেকে এমরান পলাতক রয়েছেন।  

ছবি বিবির ছোট মেয়ে শাকিলা বেগম জানান,টিনের বেড়ার ঘরে রাতে তার মা,তিন নাতি নিয়ে ঘুমিয়ে ছিলেন। তিনি অন্য ঘরে ছিলেন। শাকিলার অভিযোগ, রাতের কোন এক সময় তার বড় বোনের জামাই এমরান হোসেন টিনের বেড়া কেটে ঘরে প্রবেশ করে তার মাকে গলাটিপে হত্যা করে পালিয়ে যায়।

শাকিলা বলেন,এমরান হোসেনকে আমার বোন তালাক দেওয়ার পর থেকে তাদের সাথে আমাদের পারিবারিক কলহ চলে আসছিল। এর জের ধরে এমরান হোসেন আমার মাকে হত্যা করেছে। আমার ছেলেমেয়েরা এই দৃশ্য দেখেছে।

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের ওয়ার্ড মেম্বার তুশিত কুমার সরকার বলেন, ছবি বিবির মেয়ে জামাই ব্যক্তিগত আক্রোশ থেকে ওই বৃদ্ধাকে গলাটিপে হত্যা করেছে বলে তার পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছে।

এদিকে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মতিয়ার রহমান বলেন, তিন শিশুর বর্ণনা অনুযায়ী প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে বৃদ্ধার মেয়ে জামাই রাতের অন্ধকারে তাকে গলা টিপে হত্যা করে। এই ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত এমরান হোসেনকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।

এ ব্যাপারে নিয়ামতপুর থানার ওসি হুমায়ন কবির বলেন,  পারিবারিক কলহের জেরে এই ঘটনা ঘটে থাকতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। তবে বিষয়টি ক্ষতিয়ে দেখা হচ্ছে। এই ঘটনায় থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।