জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে কটূক্তি ও অবমাননাকর মন্তব্য করায় কাটাখালী পৌর মেয়র আব্বাস আলীকে গ্রেপ্তার ও দল থেকে বহিষ্কারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগ।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে এই সংবাদ সম্মেলন করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার। তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে কাটাখালী পৌর মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক আব্বাস আলী অবমাননাকর মন্তব্য করেছেন। যা ইতোমধ্যেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমসহ সংবাদমাধ্যমে এসেছে। জাতির পিতা বাঙালির অনুভূতি ও আবেগের জায়গা। তাকে নিয়ে কটূক্তি ও অশোভন মন্তব্য করা রাষ্ট্রদ্রোহিতার শামিল। আব্বাস আলীর প্রাথমিক সদস্যপদ বাতিলসহ তাকে স্থায়ী বহিষ্কার ও শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।

এদিকে দুপুরে নগরীর একটি রেস্টুরেন্টে সংবাদ সম্মেলন করে আব্বাস আলীর বিতর্কিত মন্তব্যের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছেন রাজশাহী-০৩ (পবা-মোহনপুর) আসনের সংসদ সদস্য আয়েন উদ্দীন। 

আব্বাস আলীর একটি অডিও সম্প্রতি ভাইরাল হয়। এতে তিনি বলেন, 'যে ম্যুরালটা দিয়েছি বঙ্গবন্ধুর, সেটা ইসলামী শরিয়ত অনুযায়ী সঠিক না। এ জন্য আমি ওটা থুবো না...। আমি দেখতে পাচ্ছি, আমাক যেভাবে বুঝালো ম্যুরালটা ঠিক হবে না দিলে, আমার পাপ হবে। কেন দিবো? দিবো না। আমি তো কানা লোক না।... বঙ্গবন্ধুক খুশি করতে যায়া আবার আল্লাহক নারাজ করবো নাকি?'

আব্বাস আলীর ১ মিনিট ৫১ সেকেন্ডের এই অডিও রেকর্ড সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ফাঁস হলে তোলপাড় সৃষ্টি হয়। দলীয় নেতাকর্মীরা তাকে শাস্তির আওতায় আনার দাবি জানান।