লালমনিরহাট সদর ও কালীগঞ্জ উপজেলার ১৭টি ইউনিয়ন পরিষদে (ইউপি) নির্বাচন ঘিরে সমাজকল্যাণ মন্ত্রী নূরুজ্জামান আহমেদের বিরুদ্ধে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ করা হয়েছে। এ নিয়ে নির্বাচন কমিশনে লিখিত অভিযোগ করেছেন তার ছোট ভাইয়ের স্ত্রী সাজেদা জামান। তিনি তুষভান্ডার ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী।

বুধবার রাতে প্রধান নির্বাচন কমিশনার বরাবর অভিযোগটি দায়ের করেন সাজেদা। এতে বলা হয়, সমাজকল্যাণ মন্ত্রী নূরুজ্জামান আহমেদ ২৬ থেকে ২৯ নভেম্বর পর্যন্ত তার নির্বাচনী এলাকা কালীগঞ্জে তার বাড়িতে অবস্থান করবেন। একই বাড়িতে তার ছোট ভাই উপজেলা চেয়ারম্যান মাহবুবুজ্জামান আহমেদ ও তার স্ত্রী চেয়ারম্যান প্রার্থী সাজেদা জামান অবস্থান করেন। মন্ত্রী নিজ বাড়িতে অবস্থান করে ভোটারদের প্রভাবিত করতে তার বাড়িতে উঠান বৈঠক করবেন। এ ছাড়া তিনি নির্বাচনী বিধিমালা লঙ্ঘন করে প্রশাসন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও ভোটারদের প্রভাবিত করছেন।

কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল মান্নান জানান, বিষয়টি তিনি রিটার্নিং কর্মকর্তাকে জানিয়েছেন।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মনজুরুল ইসলাম জানান, তার কাছে ওই অভিযোগ পৌঁছায়নি।

অভিযোগকারী সাজেদা জামান সমকালকে বলেন, মন্ত্রীর আগমনকে কেন্দ্র করে উপজেলার আটটি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থীরা শঙ্কিত।

অভিযোগের ব্যাপারে সমাজকল্যাণ মন্ত্রীর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তার সহকারী একান্ত সচিব মিজানুর রহমান সমকালকে বলেন, তিন দিনের সফরে মন্ত্রী শুক্রবার কালীগঞ্জে আসবেন। তিনি তার ভোট দেওয়ার জন্য আসছেন। নির্বাচনী আচরণবিধি মেনে তিনি তার ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। তিনি কোনো নির্বাচনী প্রচারণায় অংশগ্রহণ করবেন না।

প্রসঙ্গত, দলীয় প্রার্থীকে সমর্থন না করে নিজে নির্বাচন করায় গত ১৭ নভেম্বর উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী সাজেদা জামানকে দল থেকে বহিস্কার করা হয়। একই সময়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তা ও সাংগঠনিক সম্পাদক মশিউর রহমান বিপ্লবকে তাদের পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়। ইউপি নির্বাচনে দলীয় চেয়ারম্যান প্রার্থীর বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে স্ত্রীর পক্ষে নির্বাচনী কাজ করার অভিযোগে গত ২৪ নভেম্বর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মাহবুবুজ্জামান আহমেদকে জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতির পদ থেকে অব্যাহতি প্রদান করে জেলা আওয়ামী লীগ। অব্যাহতিপ্রাপ্ত মাহবুবুজ্জামান আহমেদ সমাজকল্যাণ মন্ত্রী নূরুজ্জামান আহমেদের ছোট ভাই। ২৮ নভেম্বর এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।