অবশেষে চট্টগ্রাম নগরীর বারইপাড়া খাল খনন প্রকল্পের কাজ শুরু হতে যাচ্ছে। শনিবার সকালে নগরীর পূর্ব ষোলশহর ওয়ার্ডের মাইজপাড়া এলাকায় স্থানীয় সরকারমন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম এ খাল খননকাজের ভিত্তিফলক উন্মোচন করেন। এ নিয়ে দ্বিতীয়বার খালটির খননকাজের উদ্বোধন করা হলো। 

এর আগে ২০২০ সালের ২৮ জানুয়ারি চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) তৎকালীন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন খালটির খননকাজের উদ্বোধন করেছিলেন।

উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ যথাযথ না হলে জনগণকে অভিযোগ দায়েরের পরামর্শ দিয়ে মন্ত্রী বলেন, 'সরকারের হাতে টাকা তৈরির যন্ত্র নেই। রাজস্ব আদায় করে সেই টাকায় উন্নয়ন কাজ করা হয়। তাই নাগরিকের দায়িত্ব আছে; কাজ ঠিকমতো না হলে অভিযোগ দেওয়ার।' এ সময় স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, দীর্ঘদিন হবে হবে করে এই খাল খননকাজ হচ্ছে না। এবার কাজটা হতেই হবে।

চসিক মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরীর সভাপতিত্বে ফলক উন্মোচন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাউজান উপজেলা চেয়ারম্যান এহছানুল হায়দার চৌধুরী বাবুল, কাউন্সিলর এম আশরাফুল আলম, সংরক্ষিত ওয়ার্ডের কাউন্সিলর শাহিন আরা চৌধুরী, চসিকের প্রধান প্রকৌশলী রফিকুল আলম প্রমুখ। প্রকল্প পরিচালক ফরহাদুল আলম জানিয়েছেন, ২ দশমিক ৯ কিলোমিটার দীর্ঘ ও ৬৫ ফুট প্রশস্ত খালটি খননে তিন দফায় বেড়ে এখন ব্যয় হচ্ছে এক হাজার ৩৭৪ কোটি টাকা। এর মধ্যে ২৫ একর জমি অধিগ্রহণে ব্যয় হচ্ছে এক হাজার ১০৪ কোটি টাকা।

এর আগে শনিবার সকালে ১৩ নম্বর পাহাড়তলী ওয়ার্ডে আমবাগান সড়ক উন্নয়ন শেষে সড়কটির উদ্বোধন করেন তাজুল ইসলাম। এ ছাড়া চসিকের আন্দরকিল্লায় পুরোনো নগর ভবনের কেবি আবদুস সাত্তার মিলনায়তনে চসিক কাউন্সিলরদের একটি প্রশিক্ষণ কোর্সের উদ্বোধন করেন মন্ত্রী।