গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র পদ থেকে জাহাঙ্গীর আলমকে সাময়িক বরখাস্তের তিন দিনের মাথায় ভারপ্রাপ্ত মেয়র হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন আসাদুর রহমান কিরণ। রোববার  দুপুরে নগর ভবনে আনুষ্ঠানিকভাবে তিনি এ দায়িত্ব গ্রহণ করেন।

দায়িত্ব গ্রহণ শেষে উপস্থিত সুধীজনের উদ্দেশে কিরণ বলেন, রাস্তা প্রশস্তকরণে যারা জমি হারিয়েছেন,  মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট শাখায় যোগাযোগ করে তাদের ক্ষতিপূরণের ব্যবস্থা করা হবে। এই কাজকে অগ্রাধিকার দিয়েই নগরীকে ঢেলে সাজাতে চাই। সিটি করপোরেশনের বিধান অনুযায়ী নির্বাচনের প্রথম সভার এক মাসের মধ্যে প্যানেল মেয়র নির্বাচন করতে হয়। কিন্তু অত্যন্ত দুঃখ ও পরিতাপের বিষয় আমরা তিন বছর চেষ্টা করেও প্যানেল মেয়র নির্বাচনে ব্যর্থ হয়েছি।

নগরবাসীর সহযোগিতা কামনা করে তিনি বলেন, গত মেয়াদে ২৭ মাস ১৩ দিন ভারপ্রাপ্ত মেয়রের দায়িত্ব পালন করেছি। আমি জানি কিভাবে নগরের উন্নয়ন করতে হবে। আমার অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে সব কাউন্সিলর ও নেতাকর্মীদের সহযোগিতায় গাজীপুর নগরীকে নতুনভাবে ঢেলে সাজাতে চাই। 

কিরণ বলেন, দীর্ঘ ২৭ বছর ধরে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি হয়ে জনগণের সেবক হিসেবে কাজ করছি। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ ও মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা সমুন্নত রেখে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখা হবে। প্রধানমন্ত্রী গাজীপুর মহানগরীর উন্নয়নে প্রায় ৮ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছেন। সে অর্থ যথাযথভাবে ব্যবহার করে নগরীর সুষম উন্নয়ন নিশ্চিত করা হবে। মানুষ যাতে হয়রানির শিকার না হয় সেদিকে বিশেষ নজর রাখা হবে। 

এর আগে কিরণ নগর ভবনে পৌঁছালে করপোরেশনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ তাকে স্বাগত  জানান। পরে নগর ভবনের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠান শুরু। সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আমিনুল ইসলামের সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আতাউল্লাহ মন্ডল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মতিউর রহমান, ২নং প্যানেল মেয়র আব্দুল আলিম মোল্লা, মহানগর যুব লীগের আহ্বায়ক কামরুল আহসান রাসেল সরকার প্রমুখ।