মাকে শ্লীলতাহানি করতে না পেরে ১৫ বছর বয়সী সন্তানকে কুপিয়েছে দুর্বৃত্তরা। শনিবার রাতে দশমিনা উপজেলার রনগোপালদী ইউনিয়নের পূর্ব আউলিয়াপুর গ্রামের খলিফা বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত অবস্থায় মা ও ছেলেকে দশমিনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, আউলিয়াপুর গ্রামের খলিফা বাড়ির চন্দন খলিফার ছেলে কৃষি ব্যাংক আউলিয়াপুর শাখার নৈশপ্রহরী তৌফিক খলিফা দীর্ঘদিন ধরে মোবাইল ফোনে ওই নারীকে অনৈতিক প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। একপর্যায়ে গত ২ অক্টোবর ওই নারী তৌফিক খলিফার বিরুদ্ধে দশমিনা থানায় লিখিত অভিযোগ করেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে তৌফিক খলিফা, হাবিয়ালা খলিফা ও নাবিউল খলিফা শনিবার রাতে ওই নারীর ঘরে ঢুকে তার শ্নীলতাহানির চেষ্টা করে। এ সময় ওই নারীর চিৎকারে তার ছেলে এগিয়ে এসে বাধা দিলে তারা মা ও ছেলেকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে ফেলে রেখে যায়। পরে স্থানীয়রা মা ও ছেলেকে উদ্ধার করে দশমিনা হাসপাতালে ভর্তি করেন। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

দশমিনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মেহেদী হাসান বলেন, অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ বিষয়ে কথা বলতে নৈশপ্রহরী তৌফিক খলিফার সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। তিনি অভিযোগ অস্বীকার করে জানিয়েছেন, ওই সময় তিনি অফিসে ছিলেন।