বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে পাঁচজনকে আটকের পর তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে নীলফামারী সদর উপজেলার সোনারায়ের একটি বাড়িতে অভিযান চালিয়ে বোমা তৈরির সরঞ্জাম উদ্ধার করেছে র‌্যাব।

শনিবার সকাল সাড়ে ৮টা থেকে ১১টা পর্যন্ত এই বাড়িতে অভিযান চালানো হয়।

এর আগে জাহেদুল ইসলাম (২৮), ওহেদুল ইসলাম (২৬), ওয়াহেদ আলী (৩০), আব্দুল্লাহ আল মামুন সুজা (২৬), নুরুল আমিনকে (২৮) আটক করা হয়। 

সকাল ১০টার দিকে হেলিকপ্টারে ঘটনাস্থলে পৌঁছান র‌্যাবের বোমা ডিসপোজাল ইউনিটসহ র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক কমান্ডার শেখ আল মঈন। পরে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গতরাতে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে পাঁচজনকে আটক করা হয়। তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে আজ সকাল থেকে সদরের সোনারায় ইউনিয়নের মাঝাপাড়া পুটিহারী এলাকার শরিফুল ইসলাম শরিফের বাড়িটি ঘিরে রাখা হয়। পরে বোমা ডিসপোজাল ইউনিট অভিযান চালিয়ে বোমা তৈরির সরঞ্জাম উদ্ধার করে।

তিনি জানান, আটক পাঁচজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য র‌্যাব-১৩ রংপুর কার্যালয়ে নেওয়া হয়েছে। বিকেলে রংপুরে সংবাদ সম্মেলন করে অভিযানে বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হবে।

এদিকে এই ঘটনা ঘিরে বাড়ির আশপাশে হাজারো মানুষ ভিড় করেন। র‌্যাব কর্মকর্তা শেখ আল মঈন জানান, আটক ওয়াহেদ আলীর নেতৃত্বে এই বাড়িতে বোমা তৈরির কাজ হতো বলে আমরা জেনেছি। রংপুর অঞ্চলে সেই এই কাজ করতো।

র‌্যাব-১৩ রংপুরের পরিচালক রেজা আহমেদ জানান, আটক পাঁচজন ওই বাড়িতে বসে জঙ্গি কার্যক্রম চালিয়ে আসছিল বলে ধারণা করছি আমরা। তাদের হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। সংবাদ সম্মেলন করে অভিযানের ব্যাপারে বিস্তারিত জানানো হবে।