চট্টগ্রাম নগরের কোতোয়ালি থানা থেকে আদালতে নেওয়ার সময় পুলিশ হেফাজত থেকে আবুল কালাম (২৫) নামে মাদক মামলার এক আসামি পালিয়ে গেছেন। পলাতক আসামি মিয়ানমারের নাগরিক। রোববার এই ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশ (সিএমপি) দক্ষিণের এডিসি আমিনুল ইসলামের নেতৃত্বে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। আর দায়িত্বে অবহেলার জন্য এক এসআই ও দুই কনস্টেবলকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সিএমপি দক্ষিণের ডিসি জসিম উদ্দীন।

তিনি জানান, পলাতক আসামি কক্সবাজারের টেকনাফ থানার লেদা পাড়ায় বসবাস করা রোহিঙ্গা শরণার্থী। তার বাবার নাম হামিদ হোসেন। রোববার নগরের কোতোয়ালি থানার কদমতলী মোড়ের উত্তর পাশে ফরিদের চায়ের দোকান থেকে এক হাজার ৫০ পিস ইয়াবাসহ তাকে আটক করে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের বিভাগীয় গোয়েন্দা শাখা। 

এই ঘটনায় অধিদপ্তরের বিভাগীয় গোয়েন্দা শাখার উপ-পরিদর্শক মোহাম্মদ্দ টিপু সুলতান বাদী হয়ে কোতোয়ালি থানায় মামলা করেন। পরে আসামি আবুল কালামসহ কোতোয়ালি থানা থেকে একাধিক আসামি আদালতে আনা হয়। আদালতে কোর্ট পুলিশকে বুঝিয়ে দেওয়ার সময় আসামির নাম ঠিকানা মেলানোর সময় তাকে পাওয়া যায়নি। থানা থেকে আদালতে নেওয়ার সময় চম্পট দেয় এই আসামি।