কক্সবাজারের উখিয়া রোহিঙ্গা শিবিরে অভিযান চালিয়ে অস্ত্রধারী নয় রোহিঙ্গাকে আটক করেছে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (৮-এপিবিএন)। তারা সবাই ডাকাত দলের সদস্য বলে দাবি করেছে এপিবিএন।

মঙ্গলবার রাত দেড়টার দিকে উখিয়া উপজেলার বালুখালী রোহিঙ্গা শরণার্থী ক্যাম্প-৯ এর সি/১১ ব্লকের মক্তবের সামনে এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়েছে বলে সমকালকে জানান ৮ এপিবিএন-এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কামরান হোসেন।

তিনি জানান, রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ডাকাতি প্রস্তুতির গুপন সংবাদের ভিত্তিতে পানবাজার পুলিশ ক্যাম্পের এপিবিএন সদস্যরা ক্যাম্প ৯ এর মকতবসংলগ্ন এলাকায় অভিযান চালান। এসময় এপিবিএন সদস্যদের উপস্থিতি টের পেয়ে ৩০-৪০ জন ‘ডাকাত’ পালানোর সময় ধাওয়া করে। পরে ৬টি রামদা ও ৩টি ডাকাতির সরঞ্জামসহ ৯ রোহিঙ্গা ডাকাতকে আটক করা হয়।

কামরান হোসেন বলেন, ‘তারা প্রত্যেকে উখিয়া বিভিন্ন ক্যাম্পের বাসিন্দা এবং সক্রিয় ডাকাত দলের সদস্য।’

রোহিঙ্গা নাগরিকরা হলেন, মোহাম্মদ সলিমের ছেলে মোহাম্মদ শফিক (২২),আব্দু শুক্কুরের ছেলে নূর মোস্তফা (২২), মতিউর রহমানের ছেলে মোহাম্মদ মিয়া (৩৮), আব্দু শুক্কুরের ছেলে হেদায়েত উল্লাহ (২২), মৃত মোঃ সফির ছেলে শফিউল আলম (৩৮), মৃত সোনা আলীর ছেলে আবুল কালাম (২৪), মৃত কাছিমের ছেলে  জাফর আলম (৪৭), মোজাহের মিয়া ছেলে জাহিদ উল্লাহ (২৪), মুসলিমের ছেলে শফি উল্লাহ (৩৩)।

আইনি প্রক্রিয়া শেষে আটক ডাকাতদের উখিয়া থানায় হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলছে বলে জানিয়েছেন এপিবিএনএর এই কর্মকর্তা।