পাবনার ঈশ্বরদীতে কাভার্ডভ্যানের চাকায় পিষ্ট হয়ে সেলিম সরদার (৪০) ও রাকিব হোসেন (৩৫) নামের দু’জন ভ্যানযাত্রী নিহত হয়েছেন। সোমবার বেলা ১১টার দিকে ঈশ্বরদী-নাটোর মহাসড়কের দাশুড়িয়ায় মালিথা ফিলিং স্টেশনের কাছে এ দুর্ঘটনায় আরও দুই যাত্রী আহত হয়েছেন। দুর্ঘটনার পরপরই বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী দাশুড়িয়া-নাটোর মহাসড়ক অবরোধ করে রাখেন। এতে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। প্রায় ১ ঘণ্টা অবরোধ থাকার পর পুলিশের অনুরোধে অবরোধ তুলে নিলে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক হয়।

নিহত সেলিম সরদার উপজেলার দাশুড়িয়ার সড়াইকান্দি গ্রামের মৃত আছের সরদারের ছেলে এবং রাকিব হোসেন নাটোর জেলার লালপুর উপজেলার তিলকপুর গ্রামের আব্দুল গণির ছেলে। এদের মধ্যে সেলিম পেশায় একজন কাঠ ব্যবসায়ী।

দুর্ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী দাশুড়িয়ার সড়াইকান্দি গ্রামের রিমন আহমেদ জানান, বেপরোয়া গতির একটি কাভার্ডভ্যানের চাকায় পিষ্ট হলে মুহূর্তেই ওই দু’জন ভ্যানযাত্রীর মাথা ওর শরীর থেঁতলে যায়। স্থানীয়রা ছুটে এসে উদ্ধারের চেষ্টা করেন তবে ততক্ষণে দুজনই মারা যান। খবর পেয়ে পুলিশ এসে মৃতদেহ দুটি উদ্ধার এবং কাভার্ডভ্যানটি জব্দ করে। তবে এসময় ওই কাভার্ডভ্যানের চালক ও হেলপার পালিয়ে যায়।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত পাকশী হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল বাশার বলেন, মরদেহ দুটি উদ্ধার করে আইনি প্রক্রিয়া শেষে পাবনা জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। কভার্ডভ্যানটি জব্দ করা হয়েছে এবং এ ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।