বিশ্বের সব মুসলিম উম্মাহর শান্তি, মুক্তি ও উন্নতি কামনা এবং বিশ্বের বিভিন্ন রাষ্ট্রে মুসলিমদের ওপর নির্যাতনের অবসান ও দেশবাসীর কল্যাণ কামনা করে আখেরী মুনাজাতের মধ্য দিয়ে বরিশালে চরমোনাই দরবার শরীফের বার্ষিক ওয়াজ মাহফিল শেষ হয়েছে। সোমবার সকাল সাড়ে ৮টা শুরু হওয়া প্রায় আধাঘণ্টা স্থায়ী আখেরী মোনাজাত পরিচালনা করেন চরমোনাইর পীর মুফতি সৈয়দ রেজাউল করীম। মোনাজাতে তিনি বলেছেন, ‘দেশে স্থায়ী শান্তি আনতে হলে সর্বস্তরে ইসলামকে বিজয়ী করতে হবে।’

এ দিন লাখ লাখ মুসল্লির আমিন আমিন ধ্বনিতে মাহফিল এলাকায় এক অভূতপূর্ব দৃশ্যের অবতারণা হয়। মাহফিলের মাঠ উপচে আশপাশের বাড়ির বাগান, আঙ্গিনা, নদীর পাড় সহ বিস্তির্ণ এলাকাজুড়ে লাখ লাখ মুসল্লি মোনাজাতে অংশগ্রহণ করেন।

মোনাজাতের আগে ফজরের নামাজের পর শেষ বয়ানে চরমোনাই পীর বলেন, ‘দেশে আজ চরম ক্রন্তিকাল অতিক্রম করছে। স্থায়ী শান্তি আনতে হলে সর্বস্তরে ইসলামকে বিজয়ী করতে হবে।’ চলমান ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সারাদেশে ইসলামী আন্দোলন হাতপাখা প্রতীকের প্রার্থীকে বিজয়ী করার আহ্বান জানান তিনি। দেশের সকল স্তরের নির্বাচনে ইসলাম বিরোধী শক্তিকে পেছনে ফেলে ইসলামের পক্ষে গণজাগরন সৃষ্টি করার জন্য অনুসারীদের প্রতি আহ্বান জানান চরমোনাই পীর।

মাহফিল আয়োজক কমিটির মিডিয়া সমম্বায়ক কেএম শরিয়ত উল্লাহ সমকালকে বলেন, গত শুক্রবার শুরু হওয়া ৩ দিনের মাহফিলে মূল বয়ান হয় সাতটি। তার মধ্যে পীর সৈয়দ মুফতি সৈয়দ মোহাম্মদ রেজাউল করীম ৫টি এবং মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম করেন দুইটি। কয়েক লাখ মুসুল্লি মাহফিলে অংশগ্রহণ করেন।