টাঙ্গাইলে ছোট ভাইয়ের স্ত্রীকে হত্যার দায়ে ভাসুরকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে দশ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে দুই মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

সোমবার দুপুরে টাঙ্গাইলের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ দ্বিতীয় আদালতের বিচারক মোহাম্মদ মোরশেদ আলম এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত ওই ব্যক্তির নাম ফরমান আলী। তিনি কালিহাতী উপজেলার উত্তর পৌলী গ্রামের আজমত আলীর ছেলে ।

অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) সিরাজুল ইসলাম বলেন, ২০০৬ সালের জুলাই মাসে কালিহাতী উপজেলার উত্তর পৌলী গ্রামে ডিস লাইনের তার চুরির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকায় শালিস বৈঠকে ফরমান আলীকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। সেই টাকা সংগ্রহের জন্য তার ছোট ভাই নুর ইসলামের স্ত্রী আছিয়া বেগমের কাছে ফরমান টাকা চান।  বিভিন্ন সময় টাকা দেওয়ার জন্য আছিয়ার উপর চাপ প্রয়োগ করতে থাকেন। আছিয়া টাকা দিতে অস্বীকার করায় ওই বছরের এক আগস্ট সকালে ফরমান আলী তার ছোট ভাইয়ের স্ত্রীকে ধারালো বটি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেন। পরে মরদেহ নিজ বাড়িতে ফেলে রেখে পালিয়ে যান।

পিপি সিরাজুল ইসলাম আরও বলেন, নিহত আছিয়া বেগমের মামা রজব আলী ওই দিনই কালিহাতী থানায় ফরমানকে প্রধান করে পাঁচজনের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা চারজনের বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ না থাকায় তাদের অব্যাহতি দিয়ে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করেন। দীর্ঘ শুনানি শেষে আদালত সোমবার এ রায় দেন।