পাবনা সদর উপজেলার চরতারাপুর ইউনিয়নে সোমবার সন্ধ্যায় নির্বাচনী সহিংসতায় নাসিম হোসেন (১৯) নামের এক এইচএসসি পরীক্ষার্থী নিহত হয়েছেন। এ সময় আরও ৫ জন আহত হয়। 

নিহত নাছিম তারাবাড়িয়া গ্রামের নায়েব আলীর ছেলে এবং দুবলিয়ার হাজী জসিম উদ্দিন ডিগ্রি কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী।

পাবনা সদর থানার ওসি আমিনুল ইসলাম সমকালকে জানান, সোমবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে পাবনা সদর উপজেলার চরতারাপুর ইউনিয়নের তারবাড়িয়া বাজারে নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী রবিউল হক টুটুল ও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আনারস প্রতীকের ছিদ্দিকুর রহমান ওরফে ছিদ্দিক খার একটি নির্বাচনী মিছিল বের করে। নাছিম মোবাইলে মিছিলের দৃশ্য ভিডিও করছিল। তাকে পেছন থেকে ছুরিকাঘাত করা হয়। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে আনা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে। 

এ ঘটনায় আহত ৫ জনের মধ্যে গুরুতর আহত একজনকে রাজশাহী মেডিকেলে কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। 

নিহত নাছিমের পিতা নায়েব আলী জানান, তার ছেলে নৌকার সমর্থক ছিলেন। 

এদিকে চরতারাপুর ইউনিয়নের নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী রবিউল হক টুটুল ও বিদ্রোহী প্রার্থী আনারস প্রতীকের ছিদ্দিকুর রহমান ওরফে ছিদ্দিক খা নিহত নাসিমকে নিজেদের সমর্থক বলে দাবি করছে। 

পাবনার সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রোকোনুজ্জামান বলেন, ‘আমরা সবাই ঘটনাস্থলে রয়েছি। তদন্ত করা হচ্ছে। তদন্তের পর জানা যাবে কিভাবে নাছিম নিহত হল।’