নড়াইল-২ আসনের এমপি মাশরাফি বিন মর্তুজা শনিবার ঝটিকা সফরে নড়াইল সদর হাসপাতালে গিয়ে বিভিন্ন অনিয়ম দেখে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। এরপর সময়মতো হাসপাতালে না আসায় আট জন চিকিৎসক, দুই জন মেডিকেল প্যাথলজিষ্ট ও একজন কর্মচারিকে শোকজ করা হয়েছে। এছাড়া রোগিদের খাবার কম দেওয়ায় আউটসোর্সিংয়ের এক কর্মচারিকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

হাসপাতালের রোগিরা জানান, মাশরাফি শনিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে হাসপালে ঝটিকা সফরে যান। এ সময় রোগীদের ঠিক মতো খাবার ও ওষুধ না দেওয়া, চিকিৎসক ও মেডিকেল প্যাথলজিষ্টদের সময়মত হাজির না হওয়াসহ বিভিন্ন অনিয়ম দেখতে পান। তিনি শিশু ওয়ার্ডে গেলে রোগীরা তার কাছে অভিযোগে জানান গত শুক্রবার রাতে ১৭ জনের জায়গায় মাত্র ৩ জনকে খাবার দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও চিকিৎসক-নার্সরা ঠিকমতো রোগি দেখেন না ও সেবা করেন না। লেট্রিন অপরিস্কার থাকে।

হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডা. আসাদ উজ-জামান মুন্সী শোকজের তথ্য নিশ্চিত করেছেন। জানা গেছে, এই হাসপাতালে বর্তমানে ২৯ জন চিকিৎসক কর্মরত আছেন। সকাল আটটায় তাদের হাজির হওয়ার কথা।

মাশরাফি বলেন, ‌'হাসপাতালে দুর-দুরান্ত থেকে গরীব মানুষ আসে। তাদের খাবার দেওয়া হয় না, চিকিৎসকরা অফিস করেন না ঠিকমত। এটা কোনোভাবেই মেনে নেওয়া যায় না।'

এর আগেও মাশরাফি আকস্মিক সফরে এই হাসপাতাল গিয়ে চিকিৎসকদের গড় হাজিরসহ নানা জায়গায় অনিয়ম দেখতে পেয়েছেন। এজন্য কয়েকজনের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়ারও সুপারিশ করেছেন তিনি।