কিছু অপ্রীতিকর ঘটনা ও সংঘর্ষের মধ্যে দিয়ে চতুর্থ ধাপে রাজশাহীর ১৫টি ইউপির নির্বাচন রোববার অনুষ্ঠিত হয়েছে। নির্বাচনে সহিংসতার অভিযোগে চারঘাট উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া বিপ্লবসহ ৩১ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ ও র‌্যাব। 

চারঘাটে সহিংসতার অভিযোগে ৮ জনকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। দুর্গাপুরে ২১ জন, বাঘায় ১ জন ও চারঘাটে অন্য একটি ঘটনায় চাইনিজ কুড়ালসহ একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

জানা যায়, রোববার চারঘাটের ৬টি, বাঘার ৩টি ও দুর্গাপুর উপজেলার ৬টি ইউনিয়ন পরিষদে ভোটগ্রহণ হয়। সকালে চারঘাটের শলুয়া ইউপির হলিদাগাছি ভোট কেন্দ্রে ভোট দিতে আসা এক ব্যক্তিকে ‘জামায়াত’ আখ্যায়িত  করে হামলা চালায় আওয়ামী লীগ সমর্থকরা। এসময় তারা দুজনকে কুপিয়ে আহত করে। এদের একজনকে গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। 

চারঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ‘মারামারির খবর শুনেছি। তবে কে কাকে মেরেছে তা জানিনা। কোন অভিযোগও পাইনি।  তবে র‌্যাব এ ঘটনায় চারঘাট উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া বিপ্লবসহ ৮জনকে গ্রেপ্তার করে থানায় সোপর্দ করেছে।‘

রাজশাহী র‌্যাবের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট জিয়াউর রহমান তালুকদার বলেন, হলিদাগাছি সহিংসতার ঘটনায় দেশিয় অস্ত্র, পাথরসহ ৮ জনকে গ্রেপ্তার করে চারঘাট থানা পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে।

রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার কিসমতগনকৈড় ইউনিয়নের স্বতন্ত্র প্রার্থী আকবর আলী অভিযোগ করে বলেন, ‘আড়ইল উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আবুল কালাম আজাদ বহিরাগত আব্দুস সালাম, সাকিল ও দুর্গাপুর পৌর ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক রাজুকে সঙ্গে নিয়ে দুপুরে জাল ভোট দিতে থাকে। এসময় স্থানীয় জনতা তাদের ধাওয়া করলে সংঘর্ষ হয়। এতে আব্দুস সালামের মাথা ফেটে যায়। সাকিল ও রাজু পালিয়ে যায়।‘

তিনি আরও বলেন, ‘ আমার কোন কোন এজেন্টকে কেন্দ্রে ঢুকতে দেয়া হয়নি। আওয়ামী লীগ প্রার্থী হুমকি ধামকি দিয়ে তাদের কেন্দ্রে ঢুকতে বাঁধা দিয়েছে।‘ 

তবে আওয়ামী লীগ প্রার্থী আবুল কালাম আজাদ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘জাল ভোট মারার কোন ঘটনা ছিল না। আমার সমর্থককে শিবির ও সর্বহারা ক্যাডাররা পিটিয়ে আহত করেছে।‘ 

ওই কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার প্রকাশ চন্দ্র প্রামানিক জানান, দুপুরে বুথ থেকে একজনকে দৌড়ে বের হতে দেখেছেন তিনি। এসময় বাহিরে মারামারি হয়েছে। তবে জাল ভোট পড়েনি। 

তিনি আরও জানান, বিকেল সাড়ে ৩টা পর্যন্ত কেন্দ্রে ৮০ শতাংশ ভোট পড়েছে।

এদিকে দুর্গাপুরের পানানগর ইউপিতে স্বতন্ত্র প্রার্থী আদম আলীর নির্বাচনী কার্যালয় আওয়ামী লীগ সমর্থকরা ভাঙচুর করে হামলা চালায় বলে তিনি অভিযোগ করেন। তিনি বলেন, ‘সকালে পানানগর কেন্দ্রে গেলে পুলিশের এসআই সইবুর রহমান সাংবাদিকদের বাঁধা দেন।‘

তবে প্রিজাইডিং অফিসার মামুনুর রশীদ বলেন, ‘শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ হচ্ছে। সকাল সাড়ে ৯টা পর্যন্ত ১৫ শতাংশ ভোট পড়েছে।’

রাজশাহীর পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হাসান বলেন, ‘নির্বাচনী নাশকতায় দুর্গাপুরে ২১ জন, বাঘায় ১ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। চারঘাটে অন্য একটি ঘটনায় চাইনিজ কুড়ালসহ একজনকে আটক করা হয়েছে।‘