ভারত থেকে আমদানি করা পাঁচ হাজার কেজি ক্যাপসিক্যামের চালানে তল্লাশি চালিয়ে পাওয়া গেছে ২০ কেজি যৌন উত্তেজক ওষুধ।

ক্যাপসিকামের সেই চালান থেকে আরও মিলেছে দেড় হাজার থ্রিপিস, আমদানি নিষিদ্ধ ২৪০ কেজি সিসা জাতীয় মাদক, ৫০ কেজি হোমিওপ্যাথিক ওষুধ ও ১০০ কেজি স্কিনক্রিম।

বেনাপোল কাস্টম হাউজের যুগ্ম-কমিশনার আব্দুর রশীদ মিয়া জানান, ঋণপত্র খোলা হয়েছিল ভারত থেকে পাঁচ হাজার কেজি ক্যাপসিক্যাম আমদানির জন্য। পণ্য চালানটি বেনাপোল বন্দরে প্রবেশের পর রোববার সন্ধ্যায় তল্লাশি চালিয়ে মিলেছে মাদক ও নিষিদ্ধ ওষুধ।

তিনি বলেন, ‘গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বন্দরের ৩১ নম্বর শেডে রাখা রাখা আমদানিকৃত ওই পণ্য চালানটি শতভাগ তল্লাশি চালানো হয়। প্রায় কোটি টাকার এই পণ্য অবৈধভাবে আনার মাধ্যমে ১০ লাখ টাকার শুল্ক ফাঁকি দেওয়া হয়েছে। আটক পণ্য চালানটি বাজেয়াপ্ত করা ছাড়াও সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট লাইসেন্সটি সাসপেন্ড করা হয়েছে।

তিনি জানান, পণ্য চালানের আমদানিকারক বেনাপোলের সিয়াম এন্টারপ্রাইজ। রোববার আমদানিকরকের পক্ষে পণ্য চালানটি ছাড় করানোর জন্য সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট বেনাপোলের মেসার্স স্বদেশ ট্রেডিং বিল অব এন্ট্রি দাখিল করে।