ঢাকা শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪

আট লাখ টাকা দিয়ে ছাড়া পেল সেলফির ১৫ বাস 

আট লাখ টাকা দিয়ে ছাড়া পেল সেলফির ১৫ বাস 

ক্ষতিপূরণ দাবিতে গত চার দিন ধরে সেলফি পরিবহনের ১৫টি বাস আটকে রেখেছেন শিক্ষার্থীরা। ছবি: সমকাল

জাবি প্রতিনিধি

প্রকাশ: ১২ ডিসেম্বর ২০২৩ | ০৪:৫৪

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) প্রাক্তন শিক্ষার্থী রুবেল পারভেজ নিহতের ঘটনায় ৮ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ নিয়ে সেলফি পরিবহনের ১৫টি বাস ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। সোমবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে বাসগুলো ছেড়ে দেওয়া হয়।

জানা গেছে, সেলফি পরিবহন কর্তৃপক্ষ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক আব্দুল্লাহ হেল কাফিসহ কয়েকজন গতকাল আলোচনায় বসেন। দীর্ঘ আলোচনা শেষে ক্ষতিপূরণ নিয়ে বাসগুলো ছেড়ে দেওয়া হয়।

অধ্যাপক আব্দুল্লাহ হেল কাফি বলেন, সাভার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) উপস্থিতিতে মালিকপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে ৮ লাখ টাকা নগদ ক্ষতিপূরণ নিয়ে বিষয়টি সমাধান হয়েছে। ৮ লাখ টাকা নিহত রুবেলের ভাই ও শ্যালকের কাছে দেওয়া হয়েছে। রুবেলের পরিবারকে সরকারি ফান্ড থেকে আরও ৫ লাখ টাকা দেওয়া হবে।

সেলফি পরিবহনের ব্যবস্থাপক পরিচালক জালাল উদ্দিন বলেন, আমরা আলোচনা করে বিষয়টি সমাধান করেছি। নিহত রুবেলের সন্তানের ভরণপোষণের দায়িত্বও নিয়েছি।

জাবির অর্থনীতি বিভাগের প্রাক্তন শিক্ষার্থী রুবেল পারভেজ ৪১তম বিসিএস শিক্ষা ক্যাডারে সুপারিশপ্রাপ্ত হয়েছিলেন। গত বৃহস্পতিবার ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের ধামরাই থানা বাসস্ট্যান্ডে সেলফি পরিবহনের চাপায় তিনিসহ দু’জন নিহত হন। খবর ছড়িয়ে পড়ার পর জাবির প্রাক্তন ও বর্তমান শিক্ষার্থীদের একটি দল ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে চলাচলকারী সেলফি পরিবহনের বাস আটকানো শুরু করেন। রুবেলের পরিবারের জন্য ২৫ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দাবি করেন বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা। এ নিয়ে পরিবহন প্রতিষ্ঠানটির কর্তৃপক্ষ, শিক্ষার্থী ও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কয়েক দফায় আলোচনা চলে। শেষ পর্যন্ত ৮ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ নিয়ে গতরাতে বাসগুলো ছেড়ে দেওয়া হয়।

আরও পড়ুন

×