ঢাকা সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪

প্রচলিত শিক্ষাব্যবস্থাকে ঢেলে সাজানো হবে: শিক্ষামন্ত্রী

প্রচলিত শিক্ষাব্যবস্থাকে ঢেলে সাজানো হবে: শিক্ষামন্ত্রী

ছবি: সমকাল

চট্টগ্রাম ব্যুরো

প্রকাশ: ২১ জানুয়ারি ২০২৪ | ১৮:১৭ | আপডেট: ২১ জানুয়ারি ২০২৪ | ১৮:৩১

প্রচলিত শিক্ষাব্যবস্থাকে ঢেলে সাজানো হবে উল্লেখ করে শিক্ষামন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেছেন, ‘শিক্ষা পাঠ্যক্রমকে সময় ও যুগোপযোগী করার লক্ষ্যে প্রচলিত শিক্ষাব্যবস্থাকে ঢেলে সাজানো হবে। নতুন কারিকুলাম অনুযায়ী শিক্ষাব্যবস্থাপনা আধুনিকায়নের কাজ এরই মধ্যে শুরু হয়েছে। প্রচলিত শিক্ষাব্যবস্থায় কর্মসংস্থান তৈরির ক্ষেত্রে যে বাধা তা সমাজকে স্থবির করে দেয়। নতুন কারিকুলামের প্রধান লক্ষ্যই হলো আমাদের সন্তানদের দক্ষ, জ্ঞান ও বিজ্ঞানমনষ্ক মানবসম্পদ হিসেবে গড়ে তোলা।’ 

রোববার চট্টগ্রাম মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ নেতাদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন। নগরীর কে সি দে রোডের মন্ত্রীর প্রধান নির্বাচনী কার্যালয়ে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় চট্টগ্রাম আওয়ামী লীগের তিন সাংগঠনিক জেলার পক্ষ থেকে তাঁকে ফুল দিয়ে অভিনন্দন জানানো হয়।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বিভিন্ন অব্যবস্থাপনা ও অনিয়মের কথা তুলে ধরে শিক্ষামন্ত্রী নওফেল বলেন, ‘শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বাণিজ্যিক দোকান নয়, শিক্ষার্থীরা যাতে প্রকৃত মানুষ হয়ে উঠতে পারে এবং নিজেরা নিজেদের সংস্থান করতে পারে সেই দিকে শিক্ষক ও শিক্ষা ব্যবস্থাপনার সঙ্গে যুক্ত সংশ্লিষ্টদের মনযোগী হতে হবে। শিক্ষকরা অবশ্যই রাজনীতি করবেন, কিন্তু অন্ধভাবে রাজনৈতিক দলের তোষামোদকারী হয়ে নিজের হীন স্বার্থ উদ্ধারের চেষ্টা না করা বাঞ্ছনীয়। শিক্ষাঙ্গনে ভর্তি বাণিজ্য ও অন্য কোনো অনৈতিকতা ও অনিয়মের সঙ্গে কেউ যুক্ত হলে তাদেরকে কঠোর শাস্তি ভোগ করতে হবে।’  

বিদেশে কর্মরত প্রবাসী বাঙালিদের অধিকাংশই অদক্ষ হওয়ায় এই খ্যাত থেকে বৈদেশিক মুদ্রা আহরণের গতি খুবই মন্থর বলে উল্লেখ করেন শিক্ষামন্ত্রী। তিনি বলেন, স্কুল ও কলেজ পর্যায়ে যে ২৯ হাজার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান রয়েছে, এগুলোর অবকাঠামো ও ব্যবস্থাপনা কাঠামোর সংস্কার জরুরি হয়ে পড়েছে। এক্ষেত্রে শিক্ষা মন্ত্রণালয় জরুরি ভিত্তিতে পদক্ষেপ নেবে। শিক্ষা কারিকুলাম পরিবর্তন রাতারাতি সম্ভব না হলেও এখন থেকেই যথাযথ পদক্ষেপ নিতে পারলে আমরা অবশ্যই কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারব।’ 

এ সময় প্রজ্ঞাবান ও বিচক্ষণ নেতৃত্বের অধীনে শান্তি, শৃঙ্খলা ও জন নিরাপত্তা সুরক্ষায় প্রশাসনকে সহযোগিতা করতে একটি মনিটরিং সেল গঠন মাধ্যমে সুনির্দিষ্ট নীতি-নির্দেশনা অনুযায়ী কার্যক্রম পরিচালনা করতে হবে বলেও উল্লেখ করেন তিনি ।

চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী সভাপতিত্বে এবং প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শফিকুল ইসলাম ফারুকের সঞ্চালনায় মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন- দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোতাহেরুল ইসলাম চৌধুরী এমপি, উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান এম এ সালাম, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন, উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ আতাউর রহমান, উত্তর জেলার সহ-সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এটিএম পেয়ারুল ইসলাম, দক্ষিণ জেলার সহ-সভাপতি শাহাজাদা মহিউদ্দিন, সহ-সভাপতি ও বিজিএমএর সাবেক সহ-সভাপতি মোহাম্মদ নাছির ও ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন চট্টগ্রাম কেন্দ্রের সাবেক সম্পাদক প্রকৌশলী মোহাম্মদ হারুন প্রমুখ। 

আরও পড়ুন

×