পাবনা সদর উপজেলায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় এক শিক্ষার্থীসহ তিনজন নিহত হয়েছেন। রোববার সকাল ৭টা থেকে সাড়ে ৭টার মধ্যে দুটি সড়ক দুর্ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, পাবনা সদর উপজেলার আতাইকুলায় ট্রাকের ধাক্কায় ভ্যানের চালকসহ দুইজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন একজন। এছাড়া উপজেলার জোতআদম এলাকায় করিমনের সঙ্গে সংঘর্ষে মোটরসাইকেল আরোহী এক এক শিক্ষার্থী নিহত হয়েছে।

নিহতরা হলেন, পাবনা সদর উপজেলার পুটিগাড়া গ্রামের মৃত তারন আলী বিশ্বাসের ছেলে ভ্যানচালক রবিউল ইসলাম বিশ্বাস (৬৫), একই গ্রামের কফিল উদ্দিনের ছেলে আব্দুল মোমিন (৪৫) ও শ্রীকৃষ্টপুর গ্রামের আসাদুল ইসলামের ছেলে সাজ্জাদ হোসেন (১৮)। সে শহীদ রফিজ উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এ বছর এসএসসি পাশ করেছিল।


মাধপুর হাইওয়ে পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কাশেম বলেন, সকাল সাড়ে ৭টার দিকে ভ্যানে করে দুইজন যাত্রী ধান ভাঙানোর জন্য মিলের দিকে যাচ্ছিলেন। হঠাৎ ভ্যানটি ভেঙে পড়ে। এ সময় বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ট্রাক এসে ভ্যানটিকে চাপা দিয়ে রাস্তার পাশে উল্টে দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই ভ্যানচালক রবিউল মারা যান। আহত অপর দুইজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়া হলে মোমনিকেও মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক।

খবর পেয়ে হাইওয়ে পুলিশ ও পাবনা দমকল বাহিনীর সদস্যরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন ও ট্রাকটি আটক করে। ট্রাকের চালক ও হেলপার পালিয়ে গেছেন।

সকাল ৭টার দিকে জোতআদম এলাকায় করিমনের সঙ্গে একটি মোটরসাইকেলের সংঘর্ষ হয়। এতে মোটরসাইকেল আরোহী সাজ্জাদের মৃত্যু হয়।

শহীদ রফিজ উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক নুর মোহাম্মদ বলেন, নিহত সাজ্জাদ মোটরসাইকেল নিয়ে টেবুনিয়ার দিকে যাচ্ছিল। এরমধ্যে বিপরীতমুখী করিমনের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষে তার মৃত্যু হয়।