আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী তৈমূর আলমকে উদ্দেশ করে বলেছেন, ‘তৈমুর সাহেব ঘুঘু দেখেছেন। ঘুঘুর ফাঁদ দেখেন নাই। টের পাবেন আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে। যে আশায় রয়েছেন, সে আশায় গুঁড়েবালি। আমি বিশ্বাস করি গত নির্বাচনে আইভীকে ৮৪ হাজার ভোট ব্যবধানে নির্বাচিত করেছিলেন নেতাকর্মীরা। ইনশাআল্লাহ আগামী ১৬ জানুয়ারির ভোটে লক্ষাধিক ভোটে জয়লাভ করবেই করবে।’

রোববার বিকালে সিদ্ধিরগঞ্জপুল এলাকায় নৌকা প্রতীকের প্রার্থী সেলিনা হায়াৎ আইভীকে বিজয়ী করতে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা ১, ২, ৩ ও ৪ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের কর্মী সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন। তৈমূরকে উদ্দেশ করে নানক আরও বলেন, বিএনপিও না আওয়ামী লীগও না, তাহলে আপনি কেডা। আপনি এখন হাতিতে পরিণত হয়েছেন। আপনাকে বিএনপি তালাক দিয়েছে। আপনি এখন বলেন, শেখ হাসিনা যদি নারায়ণগঞ্জের ভোটার হতেন তাহলে আপনাকে ভোট দিতেন। আপনাকে তো আপনার বিএনপিই ভোট দেবে না। আপনার বিএনপির লোকেরা আপনাকে ত্যাগ করেছে।

সিদ্ধিরগঞ্জে আওয়ামী লীগের কর্মী সমাবেশ-সমকাল 

তিনি বলেন, নারায়ণগঞ্জ আওয়ামী লীগ পরিবার আজ ঐক্যবদ্ধ। আগামী ১৬ তারিখ নির্বাচন আপনাদের জন্য অগ্নিপরীক্ষা। আমি কিছু আওয়ামী লীগ নেতাদের বলতে চাই। আওয়ামী লীগ করবেন আর শেখ হাসিনার নিদের্শ মানবেন না সে আওয়ামী লীগ করতে পারবেন না। তাকে আওয়ামী লীগ করতে দেওয়া হবে না। 

সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য আবদুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম কামাল হোসেন, সংসদ সদস্য সানজিদা খানম, সংসদ সদস্য কাজী মনিরম্নল ইসলাম মনু, নারায়ণগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু, মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আনোয়ার হোসেন, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খোকন সাহা ও সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাজী ইয়াছিন মিয়া। 

নৌকা প্রতীকে ভোট চেয়ে নানক আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একজন যোগ্য মানুষকে আবার মনোনয়ন দিয়েছেন। তিনি হলেন সেলিনা হায়াৎ আইভী। আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পাঠিয়েছেন। আপনারা আইভীকে বিপুল ভোটে নির্বাচিত করবেন। এই সিদ্ধিরগঞ্জ এলাকার কি অবস্থা ছিল, এই ডিএনডি খালের কি অবস্থায় ছিল, আজকে কি অবস্থায় যাচ্ছে আপনারাই ভালো জানেন।