সেলিনা হায়াৎ আইভীকে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের (নাসিক) সফল মেয়র হিসেবে মানছেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সরকারদলীয় এমপি শামীম ওসমান। সোমবার সমকালকে এ কথা বলেন তিনি। 

তবে এর আগে এক সংবাদ সম্মেলনে নৌকার পক্ষে নির্বাচনী প্রচারণায় নামার ঘোষণা দিলেও একবারও সেলিনা হায়াৎ আইভীর নাম উচ্চারণ করেননি শামীম ওসমান।

শামীম ওসমান ও সেলিনা হায়াৎ আইভী- দু'জনেই আওয়ামী লীগের নেতা হলেও নারায়ণগঞ্জের রাজনীতিতে পরস্পর প্রবল প্রতিদ্বন্দ্বী। আগামী ১৬ জানুয়ারি নাসিক নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী সেলিনা হায়াৎ আইভীর পক্ষে দলটির কেন্দ্রীয় নেতারা মাঠে নামলেও এতোদিন নিশ্চুপ ছিলেন শামীম ওসমান।

এ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী বিএনপি নেতা তৈমূর আলম খন্দকারকে ওসমান পরিবারের প্রার্থী চিহ্নিত করে ভোটের প্রচার চালাচ্ছেন সেলিনা হায়াৎ আইভী। শামীম ওসমানকে গডফাদার আখ্যা দিয়েছেন তিনি। বিপরীতে আইভীকে ব্যর্থ মেয়র আখ্যা দিয়ে ভোট প্রার্থনা করছেন তৈমূর আলম।

প্রথমে পৌরসভার চেয়ারম্যান পরে গত দুই দফায় নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন সেলিনা হায়াৎ আইভী। তিনি ১৮ বছর ক্ষমতায় থাকলেও নগরের উন্নয়নে কাজ করেননি বলে অভিযোগ করছেন তৈমূর আলম। এতোদিন মেয়র আইভীর কাজের সমালোচক ছিলেন শামীম ওসমানও।

তৈমূর আলম ওসমান পরিবারের তোতা পাখি- আইভীর এ মন্তব্যে প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে শামীম ওসমান বলেন, 'সব বিষয়ে প্রতিক্রিয়া দেওয়া জরুরি?'

তার আলোচিত সংবাদ সম্মেলনের পর সমকালের সঙ্গে কথা বলেন শামীম ওসমান। আইভী সফল নাকি তৈমূরের ভাষ্যমত ব্যর্থ মেয়র- এ প্রশ্নে তিনি বলেন, 'এ বিচার জনগণ করবে। আমি নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ভোটার নই। আমি ফতুল্লার বাসিন্দা।'

তাহলে তৈমূর আলমের মতো আপনিও আইভীকে মেয়র হিসেবে ব্যর্থ মনে করেন- এ প্রশ্নে শামীম ওসমান বলেন, 'তৈমূর আলম কী মনে করেন। তা তার ব্যাপার।' তৈমূরের মতকেই সমর্থন করেন কিনা- এ প্রশ্নে তিনি বলেন, 'গত ১৩ বছর আওয়ামী লীগ ক্ষমতায়। শেখ হাসিনা সরকার নারায়ণগঞ্জের যে উন্নয়ন করেছেন, তা গত ৫০ বছরে হয়নি। এ হিসেবে তিনি (আইভী) সফল মেয়র। যান বলে দিলাম তিনি সফল। তিনি সফল।' 

অবশ্য সংবাদ সম্মেলনের মতো সমকালের সঙ্গে আলাপচারিতায়ও আইভীর নাম উচ্চারণ থেকে বিরত থাকেন শামীম ওসমান।