হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার বহরা ইউনিয়নের সুলতানপুর গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা মাজেদা বেগম ৬ বছরেও তার নামে বন্দোবস্ত করা জমির দখল পাননি। 

অভিযোগ রয়েছে, উপজেলার মিরনগর গ্রামের জয়নাল মিয়া নামে এক প্রভাবশালী ব্যক্তি মাজেদার জমি ‘জোরপূর্বক দখল’ করে রেখেছেন। জমির দখল নিতে গেলে মাজেদাকে ‘প্রাণনাশের’ হুমকিও দিয়েছেন তিনি। 

জমির দখল পেতে বীর মুক্তিযোদ্ধা মাজেদা মাধবপুর উপজেলা সহকারী কমিশনারের কাছে আবেদন করেছেন। 

১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে পাক বাহিনী ও তাদের দোসরদের বর্বরতার শিকার হন মাজেদা বেগম। সরকার তাকে বীর মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে ঘোষণা দিয়ে ভাতার পাশাপাশি ২০১৫ সালে মাধবপুর উপজেলার মিরনগর মৌজায় বসত ঘরের জন্য ৮ শতক জমি বন্দোবস্ত দেন। 

মাজেদা বেগম সমকালকে বলেন, ‘আমার নামে পাওয়া জমিটা জয়নাল মিয়া দখল করে আছে।’

তিনি জানান, জমির দখল পেতে ২০১৬ সালে তৎকালীন উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে আবেদন করলে মাধবপুর থানা পুলিশ জমির সীমানা নির্ধারণ করে দেয়। কিন্তু প্রভাবশালী জয়নাল মিয়া জমির সীমানা খুটি উপড়ে ফেলে জমি তার দখলে নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে মাধবপুর সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ মহিউদ্দিন সমকালকে বলেন, ‘বীর মুক্তিযোদ্ধা মাজেদার বন্দোবস্তকৃত জমি দখলমুক্ত করতে মাধবপুর থানাকে অবহিত করা হয়েছে। প্রশাসন ও থানা পুলিশের সহযোগিতায় খুব দ্রুত তাকে জমি বুঝিয়ে দেওয়া হবে।’