ছয়টি শর্তে খুলনা থেকে সুন্দরবনে পর্যটকবাহী লঞ্চ চলাচলের অনুমতি দিয়েছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ)। বুধবার বিকালে বিআইডব্লিটিএ পর্যটকবাহী লঞ্চ বন্ধের নির্দেশনা দিলেও বৃহস্পতিবার রাতে তা প্রত্যাহার করে নেয়।

বিআইডব্লিউটিএ’র শর্তে বলা হয়েছে, পর্যটকরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে ভ্রমণ করবেন, প্রতিটি লঞ্চে ৭৫ জনের বেশি পর্যটক নেওয়া যাবে না, প্রত্যেক পর্যটক যাতে মাস্ক ব্যবহার করে তা লঞ্চ মালিকদের নিশ্চিত করতে হবে। প্রত্যেক পর্যটকের হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে। নদীর মাঝপথে কোনো পর্যটক উঠানো যাবে না এবং অনুমতি ছাড়া কোনো লঞ্চে ভ্রমণে যাওয়া যাবে না।

বিআইডব্লিউটিএ খুলনার উপ-পরিচালক মো. আব্দুর রাজ্জাক জানান, কোনো লঞ্চ মালিক এই শর্তগুলো ভঙ্গ করলে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

প্রসঙ্গত, এর আগে বুধবার বিকালে বিআইডব্লিটিএ করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় ট্যুর অপারেটর অ্যাসোসিয়েশন অব সুন্দরবনকে চিঠি দিয়ে বৃহস্পতিবার থেকে খুলনা থেকে সুন্দরবন পর্যটকবাহী সব লঞ্চ চলাচল বন্ধের নির্দেশনা দিয়েছিল।