ফরিদপুরের চরভদ্রাসনে মাশকালাই ক্ষেতে দেখা মিললো সাড়ে চার ফুট দৈর্ঘের বিষধর রাসেল ভাইপার বা চন্দ্রবোড়া। রোববার বিকেলে উপজেলার চর হরিরামপুর ইউনিয়নের আমীন খার ডাঙ্গী গ্রামের সাতশো বিঘার ছাম নামক স্থানে কৃষকদের হাতে সাপটি মারা পড়ে। 

সদর ইউনিয়নের বালিয়াডাঙ্গী গ্রামের বাসিন্দা সরোয়ার হোসেন জানান, চর হরিরামপুরের শালেপুর পশ্চিম গ্রামের হালিম কাজীর নিকট তার কিছু কৃষি জমি শোনকরা দেওয়া রয়েছে। সে ক্ষেতে মাশকালাই চাষ করা হয়েছে। তিনি সেই কালাই ক্ষেত দেখতে চরে যান। পাকা কালাই তুলছিলেন হালিমসহ আরও কয়েকজন। এমন সময় হালিম চন্দ্রবোড়া সাপটি কুন্ডুলি পাকিয়ে থাকতে দেখে চিৎকার করে উঠেন। পরে অন্যরা এগিয়ে এসে সাপটি মেরে মাটিতে পুতে রাখেন।  

২০১৬ সালে চরভদ্রাসনে একটি চন্দ্রবোড়ার দেখা মিললেও কেউ তখন সেটি শনাক্ত করতে পারেননি। তখন কেউ এর দ্বারা আক্রান্ত না হলেও ২০১৭ সালের মাঝামাঝিতে এর বিস্তৃতি ঘটে বলে ধারণা করা হয়। সেই বছরই শনাক্ত করা হয় এটি রাসেল ভাইপার বা চন্দ্রবোড়া এবং এর কামড়ে প্রথম মৃত্যুর ঘটনাও ঘটে। পরে এ সাপ উপজেলাব্যাপী ছড়িয়ে পড়ে বলে ধারণা। বর্তমানে উপদ্রুপ কমলেও প্রায়ই জনতার হাতে মারা পড়ছে চন্দ্রবোড়া।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা হাফিজুর রহমান বলেন, আগের তুলনায় চরভদ্রাসনে সাপের উপদ্রব অনেক কমেছে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এন্টিভেনম মজুদ রয়েছে।