শেরপুরে এক বীর মুক্তিযোদ্ধার রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। 

বৃহস্পতিবার সকালে বীর মুক্তিযোদ্ধা আলমাছ উদ্দিনের (৭০) লাশ শেরপুরের নকলার দধিয়ার চর পূর্বপাড়া সড়কের পাশ থেকে উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও নকলা গৌরদ্বার বিএল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষক আলমাছ উদ্দিন সকালে এক দোকানে চা পান করে বাসার দিকে রওনা দেন। বেলা ১১টার দিকে স্থানীয় লোকজন তাকে দধিয়ার চর পূর্বপাড়া সড়কের পাশে পড়ে থাকতে দেখেন। পরে নকলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেপে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ওই মুক্তিযোদ্ধার সহকর্মী নূর রহমান জানান, আলমাছের নাকে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। জমি নিয়ে ভাতিজার সঙ্গে তার বিরোধ চলছিল। নকলা থানার ওসি মুসফিকুর রহমান বলেন, মুক্তিযোদ্ধার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে বুধবার রাত ১২টার দিকে শ্রীবরদীর কুরুয়া বাজারের বাসিন্দা বীর মুক্তিযোদ্ধা নূর ইসলাম (৮৫) সন্ত্রাসী হামলায় গুরুতর আহত হয়েছেন। এ সময় সন্ত্রাসীরা তার বাড়িতে হামলা করে চারজনকে আহত করে। ওই মুক্তিযোদ্ধা শ্রীবরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেপে চিকিৎসাধীন।

শ্রীবরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বিপ্লব কুমার বিশ্বাস বলেন, 'মুক্তিযোদ্ধা নূর ইসলামের ওপর হামলার ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। আমরা শাহীন নামে একজনকে গ্রেপ্তার করেছি। বাকিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।'