উল্লাপাড়া উপজেলার উধুনিয়া ইউনিয়নের তরফ ভায়ড়া গ্রামে তিনটি বাড়িতে রোববার সকালে হামলার ঘটনা ঘটেছে। এ সময় এসব বাড়ির ঘর দরজা ও আসবাবপত্র ভাঙচুর করা হয়। এক পর্যায়ে দুই গৃহবধুর চুল কেটে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। হামলার শিকার ব্যক্তিরা এ বিষয়ে থানায় অভিযোগ করেছেন। পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করছে 

গ্রামের জিল্লুর রহমান, বাবলু সরকার ও মা. আলহাজ অভিযোগ করেন, পূর্ব বিরোধের জের ধরে একই গ্রামের আব্দুল মজিদ মেম্বরের পক্ষের লোকজন পরিকল্পিতভাবে তাদের ঘরবাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর ও লুটপাট করে। এ সময় চারজন আহত হয়। হামলাকারীরা আলহাজ আলীর মা হাসনা খাতুন ভানু (৬০) ও তার স্ত্রী নীলা খাতুনের (৩০) চুল কেটে দিয়ে তাদের বাড়ি থেকে বের করে দেয়। হামলাকারীরা এ সময় নগদ টাকা ও সোনাদানাসহ প্রায় ১৭ লাখ টাকার মালামাল লুট করে। 

বিষয়টি উল্লাপাড়া মডেল থানায় জানালে ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ব্যাপারে উল্লাপাড়া মডেল থানার উপ-পরিদর্শক আব্দুস সালাম জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

হামলার শিকার ওই গ্রামের জিল্লুর রহমান, বাবলু সরকার ও আলহাজ পৃথকভাবে আব্দুল মজিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দিয়েছেন। পুলিশ এ ব্যাপারে তদন্ত শুরু করেছে। হামলার সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিরা পালিয়ে গেছে।

হামলার বিষয়ে জানতে অভিযুক্ত আব্দুল মজিদকে একাধিকবার ফোন করা হলেও তাকে তাকে পাওয়া যায়নি।